পশ্চিম তীর থেকে ইসলামি জিহাদ নেতা আদনানকে আটক করেছে ইসরাইল

ইহুদিবাদী ইসরাইলি সেনারা ফিলিস্তিনের ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের শীর্ষস্থানীয় নেতা খাদের আদনানকে আটক করেছে। ইরানের বার্তা সংস্থা ফার্স জানিয়েছে, গতকাল (রোববার) সকালে জর্দান নদীর পশ্চিম তীরের নাবলুস শহরের কাছে একটি সেনা চেক পোস্টে আদনানকে আটক করা হয়।

ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের এই নেতার স্ত্রী উম্মে আব্দুর রহমান বার্তা সংস্থা কুদসকে জানিয়েছেন, খাদের আদনান জেনিন প্রদেশের আরাবা শহরের নিজ বাসভবন থেকে ইসরাইলি হামলায় শহীদ একজন ফিলিস্তিনির জানাযায় অংশ নিতে গিয়েছিলেন। জানাযা থেকে ফেরার পথে চেক পোস্টে তার গাড়ি থামিয়ে তাকে ধরে নিয়ে যায় ইহুদিবাদী সেনারা।

উম্মে আব্দুর রহমান জানান, খাদের আদনানের সঙ্গে অপর ফিলিস্তিনি যোদ্ধা মাহের আল-আখরাসকেও আটক করা হয়। তবে দুই ঘণ্টা পর তাকে ছেড়ে দেয়া হলেও আদনানকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। তার পরিবারকে তার আটকের খবর জানিয়ে দিয়েছে দখলদার সেনারা।

এই নিয়ে বহুবার ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের এই নেতাকে আটক করল ইহুদিবাদী সেনারা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তাকে বিনা বিচারে ও বিনা চার্জশিটে দীর্ঘদিন ইসরাইলি কারাগারে ফেলে রাখা হয়েছে। সর্বশেষ তাকে আড়াই বছর আগে আটক করা হয়েছিল। সে সময় তিনি নিজের বিনা বিচারে আটক রাখার প্রতিবাদে টানা ৫৭ দিন অনশন ধর্মঘট করার পর ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ তাকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়।

খাদের আদনান পশ্চিম তীর-ভিত্তিক জিহাদ আন্দোলনের নেতা। সম্প্রতি ১২ দিনের গাজা যুদ্ধে ইসরাইলের বিরুদ্ধে প্রতিরোধে তার সংগঠন উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে।

সূত্রঃ পার্সটুডে