পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন ভেঙে সোমবার কলকাতা পৌরসভা ঘেরাও করবে বিজেপি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন উপেক্ষা করে সোমবার কলকাতা পৌরসভা ঘেরাওয়ের পরিকল্পনা করেছে রাজ্য বিজেপি। নকল ভ্যাকসিনকাণ্ড নিয়ে প্রতিবাদ জানাতে শহরের বাইরে থেকে কর্মী, সমর্থক না এনে বিজেপি চায় দলের উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতা জেলা সংগঠনের ওপরে নির্ভর করেই হবে এ কর্মসূচি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

তবে বেশি জোর দেওয়া হচ্ছে দলের যুব ও নারী শাখার কর্মীদের আনার বিষয়ে। বিজেপি জানায়, গত বুধবারই দলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু কলকাতার যুব মোর্চা ও নারী মোর্চার নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেখানেই পৌরসভা ঘেরাও কর্মসূচিকে কীভাবে সফল করা যায়, তার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

রাজ্যে ঘোষিত লকডাউন না হলেও কড়া বিধিনিষেধ জারি রয়েছে। চালু হয়নি লোকাল ট্রেন, মেট্রো রেল। দোকান, বাজার থেকে বিভিন্ন গণপরিবহণ পরিষেবা নিয়ন্ত্রিত। ৫০ জনের বেশি জমায়েতেও নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

এমন পরিস্থিতির মধ্যেই বিক্ষোভ সমাবেশ করলে পুলিশের বাধার মুখে পড়তে হবে জেনেই গেরুয়া শিবির কর্মসূচি সাজাচ্ছে বলে বিজেপি সূত্রে জানা গেছে।

বিজেপির এক নেতা বলেন, পুলিশকে জানালেও অনুমতি মিলবে না। বড় জমায়েত হওয়ায় পুলিশ বাধাও দেবে। তাই প্রশাসনকে না জানিয়েই হবে পুরসভা ঘেরাও।

ভোটের ফল ঘোষণার কয়েক দিনের মধ্যেই রাজ্যে লকডাউন জারি হয়ে যায়। এর ফলে কলকাতায় তো বটেই, রাজ্যের অন্যত্রও সেভাবে আন্দোলনে নামতে পারেনি বিজেপি।

ভোটপরবর্তী সহিংসতা নিয়ে রাজভবন থেকে রাষ্ট্রপতি ভবন— এমকি প্রধানমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ করলেও পশ্চিমবঙ্গে আন্দোলন জমাতে পারেনি বিজেপি। তাই এবার জাল ভ্যাকসিনকাণ্ড নিয়েও সরব দলের নেতারা।

প্রসঙ্গত, নকল ভ্যাকসিনকাণ্ড সামনে আসতেই রাজ্য বিজেপির পক্ষে বলা হয়েছিল— জুলাই মাসের শুরুতেই লালবাজার ঘেরাও হবে। তখনও পর্যন্ত বিজেপি নেতৃত্বের আশা ছিল, জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহ থেকে লোকাল ট্রেন চালু হয়ে যাবে। কিন্তু সেটি করতে না পারাতেই এখন পুরসভা ঘেরাওয়ের এ পরিকল্পনা।