পরীমণির মামলায় রিমান্ড শেষে কারাগারে সেই তিন নারী

চিত্রনায়িকা পরীমণিকে ধর্ষণ চেষ্টা ও হত্যা চেষ্টা মামলার আসামি তুহিন সিদ্দিকী অমির তিন সহযোগীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। তারা হলেন লিপি আক্তার (১৮), সুমি আক্তার (১৯) ও নাজমা(২২)।

শনিবার ( ১৯ জুন) তিন দিনের রিমান্ড শেষে তাদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে পাঠানোর আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম ধীমান চন্দ্র মন্ডল তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে গত ১৫ জুন ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমিসহ তাদের তিনজনকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে তাদের ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। শুনানি শেষে আদালত ওই তিন নারীর তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ১৪ জুন দুপুরে রাজধানীর উত্তরার ১ নম্বর সেক্টরের ১২ নম্বর রোডের বাসা থেকে নাসির ও অমিসহ ওই তিন নারীকে গ্রেফতার করে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। অভিযান শেষে ডিবির যুগ্ম-কমিশনার হারুন-অর-রশীদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘এটা (যেখান থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে) পরীমণির কস্টিউম ডিজাইনার অমির বাসা। পরীমনির সংবাদ সম্মেলনের পর থেকে নাসির ওই তিন নারীকে নিয়ে এ বাসায় পালিয়ে ছিলেন। মাদক রাখার অভিযোগে সেই তিন নারীকেও আমরা গ্রেফতার করেছি।