পরীক্ষায় বিশৃঙ্খলা, ইংল্যান্ডের প্রধান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের পদত্যাগ

বিদ্যালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে পরীক্ষার ফলাফল আগের তুলনায় খারাপ হওয়ার জেরে প্রশ্নের মুখে পড়েছিলেন ইংল্যান্ডের পরীক্ষা ও ফল প্রদান কর্তৃপক্ষের (অফকোয়াল) প্রধান।

এছাড়া, কয়েক হাজার শিক্ষার্থী পরীক্ষায় বসতে না পারার ঘটনায় সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন প্রধান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সেলি কলিয়ার। এ ঘটনার জেরে তিনি পদত্যাগ করেছেন।

এ লেভেল পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নের ক্ষেত্রে নিয়ম পরিবর্তনের কারণে ফলাফল ৪০ শতাংশ খারাপ হওয়ার অভিযোগ ওঠে সেলি কলিয়ারের বিরুদ্ধে।

সে দেশের শিক্ষামন্ত্রী গেভিন উইলিয়ামসনের তত্ত্বাবধানে ছিলেন সেলি কলিয়ার। তবে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, পূর্ণ সহযোগিতা পাননি সেলি কলিয়ার।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ লেভেলের বহু শিক্ষার্থী সেলি কলিয়ারের নীতির কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে না পেরে নিম্নমানের কোর্স করতে বাধ্য হয়েছে।

যদিও সেলি কলিয়ার পদত্যাগ করার পর ইংল্যান্ডের ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলগুলোতে অন্য পদ্ধতিতে পাঠদান ও পরীক্ষা নেওয়ার একটা পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আর পদত্যাগের এ ঘটনায় সেলি কলিয়ারকে ধন্যবাদ জানিয়েছে মন্ত্রী গেভিন উইলিয়ামসন। তিনি বলেছেন, সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা নেওয়া এবং ফলাফলে তরুণদের এগিয়ে যাওয়ার বিষয়টি গুরুত্ব দেওয়া হবে। এ ব্যাপারে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের সঙ্গে কাজ করা হবে বলেও জানান তিনি।

সূত্র : বিবিসি