নিয়ম না মানলে ১ জানুয়ারি থেকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম বন্ধ করবে রাশিয়া

এবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিল রাশিয়া। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের অভিযোগ, পশ্চিমা দেশগুলোর এসব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম রাশিয়ার স্থানীয় আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল নয়। পুতিন প্রশাসন আগামী ১ জানুয়ারি থেকে এসব ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম নিয়ন্ত্রণে পাস হওয়া আইন কার্যকর করতে যাচ্ছে।

চলতি মাসের শুরুর দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম নিয়ন্ত্রণে নতুন আইন পাস করে রাশিয়া। এই আইনের আওতায়, দেশটিতে কমপক্ষে পাঁচ লাখ সদস্য আছে এমন প্ল্যাটফর্মকে নির্দিষ্ট কিছু বিধিবিধান মানতে হবে।

এসব বিধানের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে রাশিয়ায় সেই ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের সরাসরি অফিস বা শাখা অফিস খুলতে হবে। দেশটির নিজস্ব আইন অনুযায়ী, সেই অফিসের অনুমোদন নিতে হবে। এ ছাড়া রুশ সরকারকে বিজ্ঞাপন থেকে আয় করা অর্থের একটি অংশ কর আকারেও প্রদান করতে হবে।

এই আইন কার্যকর হবে ২০২২ সালের ১ জানুয়ারি থেকে। আর এর মাঝের সময়ে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মগুলোকে এসব আইন বাস্তবায়নে বা আইন মেনে চলতে যা যা দরকার সেই প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে হবে। এমনটা না হলে সেদিনই রাশিয়ায় বন্ধ করে দেওয়া হবে সেসব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের কার্যক্রম।

দেশটির প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেন, যদি তারা আমাদের দেশে কার্যক্রম করতে চায়, অর্থ আয় করতে চায় তাহলে তাদের আমাদের আইন মানতেই হবে। বর্তমানে দেশটিতে গুগলের বিরুদ্ধে একটি তদন্ত চলমান আছে। রাশিয়ান ব্যবহারকারীদের তথ্য রাশিয়ার বাইরে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার অভিযোগ আছে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে। ব্যবহারকারীদের তথ্য রাশিয়ান সার্ভারেই সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এমনটা প্রমাণ করতে না পারলে গুগলের বিরুদ্ধে ৮২ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা করতে পারে রুশ প্রশাসন।

এ ছাড়াও দেশটির আইন না মানায় বেশকিছু ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম বন্ধ থাকার নজিরও রয়েছে। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট ডেইলি মোশন এবং পেশাজীবীদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম লিঙ্কড ইন।

সূত্র : রয়টার্স