নিষেধাজ্ঞা ও হুমকিতে ভয় পায় না তেল ও গ্যাস উত্তোলন করবই : তুরস্ক

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বলেছেন, কোনো হুমকি কিংবা নিষেধাজ্ঞাকে ভয় পাই না আমরা। সেসব উপেক্ষা করেই ভূ-মধ্যসাগরের পূর্বে গবেষণা ও খননের কাজ অব্যাহত থাকবে। শনিবার এক ঘোষণায় এ কথা বলেন তিনি।

বরাতে জানা যায়, ভূ-মধ্যসাগরের পূর্বে সাইপ্রাসে তেল ও গ্যাস উত্তোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে তুরস্ক। সে বিষয়ে চলছে গবেষণা। যা নেতিবাচকভাবে নিয়েছে গ্রিস ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) অন্যান্য সদস্যরাষ্ট্র।

গত সোমবার গবেষণার কাজ আরো বিস্তৃত করতে সাইপ্রাসের উপকূলে নৌবাহিনীর একটি বিশেষ দল পাঠায় তুরস্ক। এরপর সেখানকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে গ্রিস থেকেও একটি দল পাঠানো হয়। দুই দেশের মুখোমুখি অবস্থানে নতুন করে শুরু হয়েছে উত্তেজনা।

সেই ঘটনার পর বৃহস্পতিবার ফ্রান্সও সাইপ্রাস উপকূলে নিজেদের সেনা অস্থায়ীভাবে মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত নেয়। গ্রিসকে সমর্থন করে এ উদ্যোগ নিচ্ছে ফ্রান্স।

এ প্রসঙ্গে এরদোয়ান বলেন, তুরস্ক কোনো ভুল করেনি। অধিকার অনুযায়ী কাজ করেছে। যেখানে আমাদের অধিকার আছে, সেখানে আমরা সর্বোচ্চটুকু দিয়েই কাজ করে যাবো। আমরা কোনো নিষেধাজ্ঞা কিংবা হুমকির মুখে সরে যাবো না।

দীর্ঘদিন ধরে তুরস্ক দাবি করে আসছে, ভূ-মধ্যসাগরের ছোট কিছু দ্বীপকে নিজেদের দাবি করছে গ্রিস। তারা মূলত এর মাধ্যমে ভূ-মধ্যসাগরে কর্তৃত্ব বজায় রাখতে চায়। আন্তর্জাতিক পানিচুক্তি অনুযায়ী যা অবৈধ।

গ্রিস থেকেও দাবি করা হচ্ছে, তুরস্ক অবৈধ উপায়ে সাইপ্রাসে গবেষণা ও খননের কাজ করছে। যা আন্তর্জাতিকভাবে অবৈধ। তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা জরুরি।

গত জুলাইয়ে জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল বলেন, সাইপ্রাসের উপকূলে তুরস্ক খনন ও গবেষণার কাজ অব্যাহত রাখলে ইউরোপীয় ইউনিয়ন দেশটির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে বাধ্য হবে।