নিউইয়র্কে প্রথমবারের মতো নারী গভর্নরের শপথ গ্রহণ

যৌন কেলেঙ্কারির কারণে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমোর পদত্যাগের পর গতকাল মঙ্গলবার নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের ২৩৩ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো গভর্নরের দায়িত্ব নিলেন ক্যাথি হোকুল। তিনি এমন সময় দায়িত্ব নিচ্ছেন যখন নিউইয়র্কবাসী করোনা মহামারির সঙ্গে কঠিন লড়াই করছে।

নিউইয়র্ক রাজ্যের রাজধানীতে এক সংক্ষিপ্ত এবং একান্ত অনুষ্ঠানে রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের ডেমোক্র্যাট ক্যাথি হোকুল রাজ্যের প্রধান বিচারপতি জেনেট ডিফিয়োরের তত্ত্বাবধানে গভর্নর হিসাবে শপথ গ্রহণ করেন।

তিনি পরে বাফেলো টেলিভিশন স্টেশন ডব্লিউজিআরজে-কে বলেন, তার কাঁধে ‘দায়িত্বের ভার’ তিনি অনুভব করেছেন। তিনি বলেন, আমি নিউইয়র্কাবাসীকে বলব আমি কাজ করছি এবং আমি সত্যিই গর্বিত যে তাদের গভর্নর হিসেবে কাজ করতে পারছি এবং আমি তাদের হতাশ করব না।

ওই রাজ্যে হোকুলের শীর্ষ পদ অর্জন এক ইতিহাস সৃষ্টিকারী মুহূর্ত, যেখানে নারীরা সেখানকার পুরুষ শাসিত রাজনৈতিক সংস্কৃতি থেকে সবে বেরিয়ে আসতে শুরু করেছেন।

প্রথমবারের মতো নিউইয়র্ক রাজ্য সরকারের সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যক্তিবর্গের মধ্যে নারীরা হতে যাচ্ছেন সংখ্যাগরিষ্ঠ। এর মাঝে রয়েছেন রাজ্যের সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা আন্দ্রেয়া স্টুয়ার্ট-কাজিনস, অ্যাটর্নি জেনারেল লেটিটিয়া জেমস এবং প্রধান বিচারপতি ডিফিওর। তবে নিউইয়র্ক রাজ্য বিধান সভার নেতৃত্ব দেন একজন পুরুষ, স্পিকার কার্ল হেস্টি। সূত্র : ভয়েস অব আমেরিকা