নারায়ণগঞ্জে ‘গণধর্ষণ ও হত্যা’র পর জীবিত, এসআই বরখাস্ত

নারায়ণগঞ্জে আলোচিত স্কুলছাত্রী জিসা মনি অপহরণ পরবর্তী নাটকীয় ঘটনায় মামলার সাবেক তদন্ত কর্মকর্তা সদর মডেল থানার এসআই শামীম আল হাসানকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

একইসঙ্গে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করা হচ্ছে। সোমবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম।

পুলিশ সুপার বলেন, জিসা মনির বাবার মামলায় আটক আসামীরা জিসা মনিকে গণধর্ষণ ও হত্যার দায় স্বীকারের পর জীবিত জিসা মনির ফিরে আসার ঘটনায় অনেক পত্র-পত্রিকায় মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে নিয়ে প্রশ্ন উঠে। সেই প্রেক্ষিতে তাকে প্রথমে মামলার তদন্তকাজ থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছিল।

একইসঙ্গে আমরা একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছিলাম যাদের দায়িত্ব ছিল এই মিথ্যা জবানবন্দির ঘটনায় পুলিশের সংশ্লিষ্টতা আছে কি না তা খুঁজে বের করা। ওই কমিটি ৩ দিনের মধ্যে আমাকে রিপোর্ট দিয়েছে।

সেখানে তদন্তের রিপোর্ট মোতাবেক তার কার্যক্রমে অসচেতনতার ছাপ পাওয়ায় তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শামীম আল মামুনকে গত বৃহস্পতিবারই চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। একইসঙ্গে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।