নাচতে নাচতে মৃত্যু ৪০০ লোকের

হঠাৎ শুরু হওয়া নাচের এ ঘটনা বহু পুরনো। ১৫১৮ সাল। জুলাই মাস। ফ্রান্সের স্ট্রসবার্গে মিসেস ত্রোফফেয়া নামের এক নারী হঠাৎ নাচতে শুরু করেন।

তারপর সেখানে উপস্থিত সবাই নাচতে শুরু করেন। কিছুতেই তাদের নাচ থামছিল না।

এক সপ্তাহ পর আরও বহু মানুষ সেই নাচের সঙ্গে যোগ দেন। এক মাস পর শত-শত মানুষ সেই অবিরাম নাচে যোগ দেন। অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলেন কেউ কেউ। বাকিরা ফের নাচতে শুরু করেন।

শহরের সে সময়ের শাসকরা ভাবলেন, এভাবে অবিরত নাচতে দিলে নিশ্চয় ক্লান্ত হয়ে নাচ থেমে যাবে সবার। তাই তারা শহরের টাউনহলে সব মানুষের নাচার ব্যবস্থা করে দিলেন। এদের মধ্যে ক্লান্তি, হার্ট অ্যাটাক ও উচ্চ রক্তচাপে প্রাণ হারান প্রায় ৪০০ মানুষ।

মাসের পর মাস অবিরাম নাচ চালানো কোনো ব্যক্তির পক্ষেই সম্ভব নয়। কিন্তু কেন শুরু হয়েছিল সেই নাচ, আজ পর্যন্ত জানা সম্ভব হয়নি।

যদিও অনেকে দাবি করেন, বহু দিন ধরে অন্ধকার ও বদ্ধঘরে পানি আর পাউরুটি খাইয়ে রাখার পর বাইরে ছেড়ে দেয়া হয় কিছু লোককে। তাদের মধ্যেই এ নাচের ঝোঁক দেখা যায়।