দ. চীন সাগরে বেইজিংয়ের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা, উদ্বিগ্ন যুক্তরাষ্ট্র

দক্ষিণ চীন সাগরে বৃহস্পতিবার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে বেইজিং। এ ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির প্রতিরক্ষা দফতর বলছে, এটি ওই অঞ্চলে শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য হুমকি। শুক্রবার এ খবর জানিয়েছে

প্যারাসেল দ্বীপের চারপাশে সামরিক মহড়া চালানোর সময় চীনা বাহিনী অন্তত চারটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে বলে খবরে জানানো হয়।

পেন্টাগন বলছে, এ পদক্ষেপটি বিতর্কিত সমুদ্রগুলোর উসকানিমূলক কার্যকলাপ এড়াতে দেশটির ২০০২ সালের প্রতিশ্রুতির বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

এক বিবৃতিতে পেন্টাগন বলেছে, দক্ষিণ চীন সাগরে বিতর্কিত অঞ্চল নিয়ে সামরিক মহড়া পরিচালনা করা উত্তেজনা হ্রাস ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার সম্পূর্ণ বিপরীত। ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাসহ চীনের এ ধরনের কার্যবলাপ ভবিষ্যতে দক্ষিণ চীন সাগরের পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করে তুলবে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দক্ষিণ চীন সাগরে ২০০২ সালের ঘোষণা পরিপন্থী কাজ করছে বেইজিং। এতে বিতর্কিত অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতায় প্রভাব পড়বে।

চীন কয়েক দশক ধরে দক্ষিণ চীন সাগরের একটি বিশাল অংশ দাবি করে আসছে। সেখানে তারা কয়েকটি বিরোধীয় দ্বীপে সামরিকঘাঁটি নির্মাণ করে আসছে। এদিকে ভিয়েতনাম, ফিলিপাইন, মালয়েশিয়া, তাইওয়ান ও ইন্দোনেশিয়া তাদের কাছাকাছি সামুদ্রিক অঞ্চল দাবি করে আসছে।

সূত্র: আলজাজিরা।