দুই স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করায় প্রধান শিক্ষককে গণপিটুনি, পুলিশে সোপর্দ

ঢাকার ধামরাইয়ে দুই স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করায় শরিফুল ইসলাম নামে এক প্রধান শিক্ষককে আটকের পর গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

আজ রবিবার সকালে ধামরাইয়ের সুয়াপুর মাইলেশিয়াম কিন্ডারগার্টেন হাইস্কুলে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, ধামরাইয়ের সুয়াপুর মাইলেশিয়াম হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলাম তার স্কুলের কয়েকজন ছাত্রীকে স্কুল কক্ষেই দীর্ঘদিন ধরে প্রাইভেট পড়িয়ে আসছিলেন। পরীক্ষায় পাশ করিয়ে দেওয়ার কথা বলে দুই ছাত্রীকে বিভিন্ন কু-প্রস্তাব দেয় এবং উত্ত্যক্ত করে আসছিল।

বিষয়টি ওই ছাত্রীরা অভিভাবকদের কাছে জানালে আজ সকালে স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলামকে আটকের পর গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

আটক শরিফুল ইসলামের বাড়ি ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী উপজেলায়। তিনি সাভারের নয়ারহাট এলাকায় বাসা ভাড়া থেকে ধামরাইয়ের সুয়াপুর মাইলেশিয়াম নামে একটি কিন্ডারগার্টেন হাইস্কুলে প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন।

ধামরাই থানার এসআই আনোয়ার হোসেন দুই ছাত্রী উত্ত্যক্তের ঘটনায় প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলামকে আটকের কথা স্বীকার করে বলেন তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।