দুই বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের দক্ষিণ বাঁশজানি সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে শামীম হোসেন (২৬) ও শাহজালাল মিয়া (১৭) নামের দুই বাংলদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ। তারা দু’জনই নির্মাণ শ্রমিক।

শুক্রবার (২১ আগস্ট) দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে ভারতের নো-ম্যান্স ল্যান্ডে অবস্থিত এক ভারতীয়ের বাড়ির গেট নির্মাণ কাজ করার সময় তাদের ধরে নিয়ে যায় বিএসএফ।

এলাকাবাসী জানান, সীমান্তের আন্তর্জাতিক সীমানা পিলার ৯৭৬ এর ৭ এস সাব-পিলারের পার্শ্ববর্তী ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের কুচবিহার জেলার দিনাহাটা থানার দীঘলটারী গ্রাম। এই গ্রামের সীমান্তের নো-ম্যান্স ল্যান্ডে ভারতের অধিবাসী নজির হোসেনের বাড়ি।

এই সীমান্তটি কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের দক্ষিণ বাঁশজানি গ্রামের পাশাপাশি। এখানে কোন কাঁটাতারের বেড়া না থাকায় বাংলাদেশ ও ভারতের পাশাপাশি এই দুই গ্রামের মানুষ প্রতিবেশীর মতো বসবাস করে আসছেন।

 

এ কারণে অন্যান্য সময়ের মতো দক্ষিণ বাঁশজানী গ্রামের সোহরাব আলীর পুত্র শামীম হোসেন ও মোঃ হামিদুল ইসলামের পুত্র শাহজালাল মিয়া ভারতের নো-ম্যান্স ল্যান্ডে অবস্থিত নজির হোসেনের বাড়ির গেট নির্মাণের কাজ করছিলেন। এ সময় দীঘলটারী বিএসএফ বিওপি’র টহল দল তাদের আটক করে নিয়ে যায়।

এ প্রসঙ্গে কুড়িগ্রামস্থ ২২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল মোহাম্মদ জামাল হোসেন জানান, এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে আটক দু’জনকে শনিবার (২২ আগস্ট) তাদের থানায় সোপর্দ করেছে বলে জানিয়েছে বিএসএফ।