দীর্ঘ ২৩ বছর কারাভোগের পর মুক্তি পেলেন ছাত্রদল নেতা সবুজ

দীর্ঘ ২৩ বছর কারাভোগের পর মুক্তি পেলেন সিরাজগঞ্জের শাহ’জাদপুর উপজে’লার বিএনপি আ’লোচিত সাবেক ছাত্রনেতা আমির হোসেন সবুজ।

সিরাজগঞ্জ জে’লা কারাগার থেকে রবিবার (১৬ আগষ্ট) বেলা ১১টায় তিনি মুক্তিলাভ করেন। মুক্তির পর উপস্থিত দলীয় নেতাকর্মীরা তাকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন।

জানা যায়, শাহ’জাদপুর উপজে’লা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ১৯৯৭ সালে একটি হ’ত্যা মা’মলার যাব’জ্জীবন কারাদ’ণ্ড দেয় আ’দালত। আমির হোসেন সবুজ শাহ’জাদপুর উপজে’লা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ৯০ এর স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আ’ন্দোলনের রাজপথের ল’ড়াকু সৈনিক ছিলেন। শাহ’জাদপুর রাজনৈতিক অঙ্গনের অ’ত্যান্ত পরিচিত মুখ মোঃ আমির হোসেন সবুজ।

এই ছাত্রনেতা মুক্তি পেয়ে নিজ জন্মভূমি শাহ’জাদপুরে এসে পৌছলে তাকে এক নজর দেখার জন্য শতশত জনতা ভীর জমায়। সাবেক ছাত্রনেতা সবুজ কারাগার থেকে দীর্ঘ ২৩ বছর পর মুক্তি পেয়ে সাংবাদিকদের বলেন, আমি যে মিথ্যা মা’মলায় দীর্ঘ ২৩টি বছর কারাভোগ করেছি ওই মা’মলার বাদী পক্ষের কেউ বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবেনা আমি ঐ মা’মলার সাথে জড়িত ছিলাম এমন কি পুরো শাহ’জাদপুর বাসীর একজন লোকও বলতে পারবেনা এই মা’মলার সাথে আমি সম্পৃক্ত ছিলাম, যা হোক ভাগ্যের পরিনাম মেনে নিতেই হয়। আমি আমা’র জন্মভূমি শাহ’জাদপুরকে পবিত্র কাবা শরীফ মনে করি সেই পবিত্র মাটিতে ফিরে আসতে পেরেছি এতেই আমা’র জীবন ধন্য।

এর আগে জন্মভূমি শাহ’জাদপুরে পৌঁছে আমির হোসেন সবুজ প্রথমেই হযরত মখদুম শাহ্ দৌলা শহীদ ইয়ামেনি (রঃ) এর মাজার জিয়ারত ও পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত করেন।

পরিশেষে উপস্থিত জনতার উদ্দ্যেশে বলেন, আপনারা মা’দক হতে দুরে থাকুন মা’দককে পরিহার করুন সুস্থ্য থাকুন। আপনার পরিবার পরিজনকে ভাল রাখু’ন শাহ’জাদপুর বাসীকে ভাল রাখু’ন, আমি আপনাদের কাছে এই প্রত্যাশা করি।