তৃতীয় বৃহত্তম শহর হেরাতের দখল নিল তালেবান, পতনের মুখে কান্দাহার

আফগানিস্তানের তৃতীয় বৃহত্তম শহর হেরাতের দখল নিয়েছে তালেবান। শহর দখল করেই সেখানকার প্রধান কারাগারের তিন হাজার বন্দিকে ছেড়ে দিয়েছে তারা। তালেবান মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ দাবি করেছেন, তাদের ‘সেনারা’ হেরাতের পুলিশ সদর দপ্তরের নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করেছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে, তালেবান সদস্যরা হেরাত দূর্গের আশপাশে টহল দিচ্ছে। আরেকটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, তালেবান জঙ্গিরা হেরাতের একটি সেনা ঘাঁটিতে প্রবেশ করছে।

এদিকে তালেবান কান্দাহার শহরের নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করার দাবি করলেও নিরপেক্ষ সূত্র থেকে এই দাবির সত্যতা নিশ্চিত করা যায়নি। এর আগে তালেবান বাগদিস প্রদেশের কালা নু শহর দখল করে নেয়।

এদিকে, কান্দাহার থেকে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এই শহরের বিভিন্ন স্থানে তালেবান বন্দুকধারীদের দেখা গেছে এবং সেনাবাহিনীর সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ চলছে। একজন সংবাদদাতা বলেছেন, শহরটির গভর্নরের দপ্তরের কাছেও তালেবান সদস্যদের দেখা গেছে। বুধবার বিকেলে তালেবান দাবি করেছিল, তারা শহরটির কেন্দ্রীয় কারাগার দখল করে সেখানকার কয়েকশ’ বন্দিকে ছেড়ে দিয়েছে।

আফগানিস্তানের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলেও তালেবানের সঙ্গে সরকারি সেনাদের তীব্র সংঘর্ষ চলছে। হাজার হাজার বেসামরিক মানুষ প্রাণভয়ে রাজধানী কাবুলের দিকে পালিয়ে যাচ্ছেন। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাই কমিশন বলেছে, হাজার হাজার আফগান শরণার্থীর জন্য মানবিক ত্রাণ প্রয়োজন।

সূত্রঃ পার্সটুডে