ট্যাংকবাহী যানবাহন নির্মাণে স্বয়ংসম্পূর্ণ ইরান, দাবি সেনা উপপ্রধানের

দীর্ঘদিন ধরেই ইরানের অস্ত্রশিল্প যেন মেলে ধরছে নিজেকে। বিশ্বের ক্ষমতাধর পরাশক্তিগুলোর একটি হওয়ায় ইরান চাইছে প্রতিযোগিতা টিকিয়ে রাখতে। এরই ধারাবাহিকতায় তারা এবার মনোযোগী হয়েছে ট্যাংকবাহী যানবাহন নিয়ে। এই খাতে ইরান স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির সেনাবাহিনীর উচ্চপর্যায়ের এক কর্মকর্তা।

এবার ট্যাংকবাহী যানসহ সব ধরনের অতি ভারী যান নির্মাণে ইরানের সশস্ত্র বাহিনী স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে বলে খবর দিয়েছেন ইরানের সেনাবাহিনীর উপপ্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নওজার নেয়মাতি।

তিনি মঙ্গলবার তেহরানে এক সামরিক অনুষ্ঠানের অবকাশে বার্তা সংস্থা এ তথ্য জানান। ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নওজার নেয়মাতি বলেন, ইরানি বিশেষজ্ঞদের মাধ্যমে ট্যাংকবাহী যান নির্মাণের ফলে এই বাহন নির্মাণে কিছু দেশের একচ্ছত্র আধিপত্যের অবসান হয়েছে।

ইরানের এই সমারিক কমান্ডার বলেন, তার দেশের বিরুদ্ধে আমেরিকার বেআইনি নিষেধাজ্ঞা যাতে সামরিক সরঞ্জাম ও যুদ্ধাস্ত্র তৈরির পথে বাধা হয়ে না দাঁড়ায় সেজন্য ইরানের তরুণ বিজ্ঞানীরা নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ব্রিগেডিয়ার নেয়মাতি বলেন, ইরানের সশস্ত্র বাহিনী এখন প্রতিরক্ষা খাতের প্রায় সব সামগ্রী নিজেই উৎপাদন করছে।

তিনি আরো বলেন, শত্রুদের নিষেধাজ্ঞাকে ইরানি বিজ্ঞানীরা সুযোগে পরিণত করেছেন। তারা কঠিনতম নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই সামরিক কাজে ব্যবহৃত অতি ভারী যান উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছেন।