টেকনাফে পানি নেওয়াকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গা যুবককে হত্যা

কক্সবাজারের টেকনাফের চাকমারকুল রোহিঙ্গা শিবিরে পানি নেওয়াকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট কথা কাটাকাটি ও ঝগড়ার জের ধরে হামলা চালিয়ে এক রোহিঙ্গা যুবককে হত্যা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে হামলায় আহত যুবককে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে আনা হলে শুক্রবার বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রোহিঙ্গা নুর আলম।

উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের চাকমারকুলের ২১ নম্বর ক্যাম্পের ব্লক-আই ২ এর মৃত নুর হোসেনের ছেলে নুর আলম (২৫)।

এপিবিএনর পুলিশ সুপার মো. হেমায়েতুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার বিকালের দিকে পানি নেওয়াকে কেন্দ্র করে চাকমারকুলের ২১ নম্বর ক্যাম্পের ব্লক-আই ২ এর ৩৮৮ নম্বর ঘরের বাসিন্দা রোহিঙ্গা কাজলীর সঙ্গে প্রতিবেশী জান্নাত আরার কথা কাটাকাটি ও ঝগড়া হয়।

পরে রাত ৯টার দিকে জান্নাতের পক্ষের সাত থেকে আট জন রোহিঙ্গা কাজলীর স্বামী নুর আলমকে ঘর থেকে ডেকে তার ওপর হামলা চালায়। সে সময় গুরুতর আহত হলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য নুর আলমকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

সেখানে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় টেকনাফ মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।