টিকা নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ব্রিটেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জাভিদের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তার দেহে করোনার মৃদু উপসর্গ ধরা পড়েছে। করোনাভাইরাসের দুই ডোজ ভ্যাকসিন নিয়েও করোনায় আক্রান্ত হলেন তিনি। স্থানীয় সময় শনিবার রাতে পিসিআর টেস্টের পর তার করোনা সংক্রমণের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। সাজিদ জাভিদ নিজেই এ বিষয়টি জানিয়েছেন। খবর বিবিসির।

সাজিদ জাভিদ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, তিনি আগামী কিছুদিন সেলফ আইসোলেশনে থাকবেন এবং বাড়ি থেকেই কাজ করবেন। গত শুক্রবার তিনি বরিস জনসনের সঙ্গে দেখা করেছেন। তবে এটা এখনও নিশ্চিত নয় যে, বরিস জনসনকে আবারও আইসোলেশনে থাকতে হবে কীনা। এর আগেও বরিস জনসন একবার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সে সময় তিনি মৃত্যুর দ্বারপ্রান্ত থেকে ফিরে এসেছেন।

ব্রিটেনে যখন করোনার বিধিনিষেধে শিথিলতা আনতে যাচ্ছে বরিস জনসনের সরকার তখনই আক্রান্ত হলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। দেশটির দৈনিক সংক্রমণের হার পাল্লা দিয়েছে বাড়ছে। সোমবার থেকে সামাজিক দূরত্ব এবং মাস্ক পড়ায় বাধ্যবাধকতা থাকছে না। এদিকে ইংল্যান্ডের উপ-প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা অধ্যাপক জোনাথন ভান-তাম সামনের শীতে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার বিষয়ে সতর্ক করেছেন।

দেশটিতে গত কয়েকদিন ধরেই দৈনিক ৫০ হাজার মানুষ করোনায় শনাক্ত হচ্ছেন। লকডাউন প্রত্যাহার করা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের পদক্ষেপে ক্ষোভ প্রকাশ করে সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা উদ্বেগ প্রকাশ করে বলছেন, বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া হলে ফলাফল ভয়াবহ হতে পারে। দেশটিতে করোনার সংক্রমণ আবারও বৃদ্ধি পাবে। যদিও বিশেষজ্ঞদের কথা পাত্তা না দিয়েই সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছে ব্রিটিশ সরকার।
গত শুক্রবার নতুন করে দৈনিক সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৫১ হাজার ৮৭০। অপরদিকে গত শনিবার দৈনিক সংক্রমণ ছিল ৫৪ হাজার ৬৭৪। এর আগে গত জানুয়ারির মাঝামাঝিতে দৈনিক সংক্রমণ ৫০ হাজারের বেশি ছিল।

সূত্র : বিবিসি