টিকটক কেনা-বেচায় ‘বড় ভাগ’ চান ট্রাম্প

চীন মালিকানাধীন সোশ্যাল ভিডিও অ্যাপ টিকটক ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিক্রি না হলে তা নিষিদ্ধের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। সেইসঙ্গে অ্যাপটি কেনা-বেচার চুক্তি থেকেও বড় অঙ্কের অর্থ সরকারের পাওয়া উচিত বলে দাবি করেছেন তিনি।

চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্সের মালিকানাধীন ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ টিকটক যুক্তরাষ্ট্র নিষিদ্ধ করবে বলে আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন ট্রাম্প।

পরে তিনি টিকটকের যুক্তরাষ্ট্র অংশ বিক্রিতে মত দেন এবং মাইক্রোসফট তা কিনে নিলে আপত্তি নেই বলেও জানান। তবে ট্রাম্প বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রের কোনও ফার্ম টিকটকের মার্কিন ইউনিট কিনে নিলে এই অ্যাপটি বিক্রির অর্থের একটি অংশ সরকারের পাওয়া উচিত।

টিকটক-ইউ এস বিক্রি নিয়ে মাইক্রোসফটের দরাদরির মধ্যেই রোববার এই প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ।

ওই ফোন কলেই টিকটক কেনা-বেচা নিয়ে কোনওরকম চুক্তির ক্ষেত্রে অর্থের একটি বড় শতাংশ যুক্তরাষ্ট্রের কোষাগারে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বলে জানান ট্রাম্প।

একইসঙ্গে সতর্ক করে দিয়ে ট্রাম্প বলেছেন, ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে কোনও চুক্তি না হলে অ্যাপটি নিষিদ্ধ করবেন তিনি। ট্রাম্পের এই হুমকির মুখে চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্স টিকটকের মার্কিন ইউনিট বিক্রি করে দেওয়ার চাপে পড়েছে।

জানায়, টিকটকসহ অন্যান্য চীনা অ্যাপের বিরুদ্ধে চীন সরকারকে তথ্য সরবরাহ করার অভিযোগ করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। টিকটক অ্যাপটি আমেরিকানদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার কাজে ব্যবহার হতে পারে বলেও মার্কিন নিরাপত্তা কর্মকর্তারা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

যদিও এমন অভিযোগ টিকটক অস্বীকার করেছে। তাছাড়া, তাদের ওপর চীন সরকারের কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই এবং তারা কোনও তথ্য সরকারকে দেয় না বলেও দাবি করেছে।

কিন্তু বাণিজ্য যুদ্ধ, হংকংয়ে চীনের আধিপত্য, দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের নিয়ন্ত্রণ বৃদ্ধি এবং করোনাভাইরাস মহামারীর মত বিষয় নিয়ে সম্প্রতি বেইজিংয়ের সঙ্গে ওয়াশিংটনের সম্পর্কের অবনতির মধ্যে ট্রাম্প গত ১ অগাস্টে টিকটক নিষিদ্ধ করার ইঙ্গিত দেন।