ঝালকাঠি মৃত্যুর ২২ বছর পরও কবরে ‘অক্ষত লাশ’

প্রায় ২২ বছর আগে দাফন করা এক ব্যক্তির মরদেহ অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে ঝালকাঠি সদর উপজেলায়। এসময় মরদেহ এবং কাফনের কাপড়ও অক্ষত ছিল।

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পুনরায় ওই মরদেহ দাফন করা হয়েছে। ঘটনাটি ঝালকাঠি সদর উপজেলার ভাটারাকান্দা গ্রামের।

১৯৯৮ সালের দিকে একই গ্রামের বাসিন্দা মো. মোজাফফর আলী হাওলাদার ৬৫ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর তাকে ভাটারাকান্দা গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছিল।

স্থানীয় ও স্বজনরা জানান, ২২ বছর আগে মারা যাওয়া ঝালকাঠি সদর উপজেলার চরকাঠি গ্রামে মো. মুজাফফর আলী হাওলাদার মারা যান। তাকে ওই গ্রামেই দাফন দেয়া হয়।

অনেক দিন ধরে গ্রামটি নদীগর্ভে বিলিন হওয়ার উপক্রম হলে মৃত মুজাফফর আলী হাওলাদারের স্বজনরা তার কবর স্থানান্তরের উদ্যোগ নেয়। এ সময় মুজাফফর আলী হাওলাদারের কবর স্থানান্তরের জন্য কবর খুঁড়লে তাতে দেখা যায় মৃত ব্যক্তির কাপড় অক্ষত রয়েছে। এছাড়া মৃতদেহও অক্ষত।

 

পরে স্বজনরা উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে এলে মরদেহের শুধু চামড়াগুলো হাড়ের সাথে মিশে গেছে দেখতে পায়। এ খবর মুহূর্তের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ওই বাড়িতে লোকজন ভিড় জমায়।

পরে মঙ্গলবার আসর বাদ নামাজে জানাজা শেষে পুনরায় পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হয় বলে জানান ধানসিঁড়ি ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন।