জামালপুরে স্বামীকে জুয়া খেলতে নিষেধ করায় স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা

জামালপুরের সরিষাবাড়ীর ভাটারা ইউনিয়নের চর হরিপুরের শুক্রবার দুপরে সোমা (২৫) নামে এক গৃহবধূ তার স্বামীকে জুয়া খেলতে নিষেধ করায় তাকে গলা টিপে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহতের ভাই জুয়েল মিয়া বাদী হয়ে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

নিহত গৃহবধূ সোমার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, পাঁচ বছর আগে হরিপুর গ্রামের গোলাম রব্বানীর মেয়ে সোমার বিয়ে হয় একই গ্রামের রহমত আলীর ছেলে আল আমিনের সাথে। ঘরে তাদের একটি মেয়ে (৪) ও একটি ছেলে (দেড় বছর) রয়েছে।

আল আমিন পূর্ব থেকেই জুয়ার আসক্ত ছিল। সম্প্রতি কয়েক দিনে প্রায় দেড় লক্ষ টাকা জুয়া খেলে লোকসান দেয়। ঘটনার দিনও সকাল থেকে জুয়া খেলে দুপুরে বাড়ী এসে স্ত্রী সোমার সাথে ঝগড়া বাধায়। সোমা স্বামীকে শাসন না করতে পারলেও নিষেধ টুকুও করতে পারত না। স্বামীকে দু চার কথা বলতে না বলতেই স্বামী আল আমিন সোমাকে গলা টিপে ধরলে সাথে সাথে সোমা মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়ে।

পরে সোমার মুখে বিষ ঢেলে দিয়ে আল আমিন বাড়ী থেকে পালিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পরে বিষয়টি বাড়ীর অন্যান্য লোকদের নজরে এলে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আঃ মজিদ নিহতের ঘটনাটি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।