জাপানে ধেয়ে আসছে শক্তিশালী টাইফুন হাইশেন

জাপানের দক্ষিণাঞ্চলীয় দ্বীপ কিয়োশোর উপকূলের দিকে প্রচণ্ড শক্তি নিয়ে ধেয়ে আসছে টাইফুন হেইশেন।

শক্তিশালী এ ঝড়ের প্রভাবে রোববার সকাল থেকে প্রবল বাতাস এবং ভারী বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। দেশটির কর্মকর্তারা সতর্ক করে বলেছেন, বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে ফেলা ছাড়াও রাস্তায় চলাচলকারী যানবাহন উল্টে দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে হেইশেনের।

দেশটির আবহাওয়াবিদরা হেইশেনকে ‘ব্যাপক শক্তিশালী’ ক্যাটাগরির ঘূর্ণিঝড় হিসেবে অভিহিত করেছেন।

রোববার বিকালের দিকে জাপানের দক্ষিণাঞ্চলীয় ছোট্ট দ্বীপ কিয়োশোর পাশে আমামি অঞ্চলে ঝড়টি আঘাত হানতে পারে। ওই এলাকাটি প্রশান্ত মহাসাগরকে পূর্ব চীন সাগর থেকে পৃথক করেছে।

স্থানীয় সময় রোববার সকাল ৮টার দিকে আমামি দ্বীপের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল থেকে আনুমানিক ১৫০ কিলোমিটার দূরে ছিল টাইফুন হেইশেনের অবস্থান। তখন ঘণ্টায় ঝড়টির বেগ ছিল ২৫২ কিলোমিটার।

জাপানের আবহাওয়া সংস্থার দেয়া পূর্বাভাস অনুযায়ী, হেইশেন দেশের অন্যতম প্রধান দ্বীপ কিয়োশোর উত্তর উপকূলে আঘাত হানার পর তা দক্ষিণ উপকূলের দিকে ধেয়ে যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সোমবার সকাল পর্যন্ত এর তাণ্ডব চলতে পারে বলেও জানানো হয়েছে।

আবহাওয়াবিদরা সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, জনবহুল দ্বীপে আছড়ে পড়ার পর ব্যাপক শক্তিশালী টাইফুন হেইশেনের ঝড়ো বাতাসে বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে পড়া ছাড়াও যানবাহনগুলো উল্টে যেতে পারে।

কিয়োশোর দুই লক্ষাধিক বাসিন্দাকে নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।