জম্মু-কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ২ গেরিলা নিহত

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনী ও গেরিলাদের মধ্যে সংঘর্ষে দুই গেরিলা নিহত হয়েছে। আজ (শুক্রবার) রাজৌরি জেলার থানামান্ডি এলাকায় ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানিয়েছে, গোয়েন্দা তথ্য পাওয়ার পরে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনী থানামান্ডি বনভূমি এলাকা ঘেরাও করে তল্লাশি অভিযান শুরু করে। নিরাপত্তা বাহিনী সন্ত্রাসীদের কাছে পৌঁছনোর পরেই সংঘর্ষ শুরু হয়। রাজৌরির পুলিশ সুপার শীমা নবি কসবা, যিনি অভিযান পর্যবেক্ষণ করছেন, তিনি এনকাউন্টারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সেনাবাহিনীর মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল দেবেন্দ্র আনন্দ বলেন, জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের নির্দিষ্ট গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে থানামান্ডি বনভূমি এলাকায় একটি যৌথ অভিযান চালানো হয়। সংঘর্ষে দুই সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। সংশ্লিষ্ট এলাকায় তল্লাশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

জম্মু-কাশ্মীরে পুলিশ, আধাসামরিক বাহিনী ও সামরিক বাহিনীর সদস্য সমন্বিত যৌথ বাহিনী গেরিলা নির্মূল অভিযান অব্যাহত রেখেছে। গত (শনিবার) দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে দুই গেরিলা নিহত হয়েছে। পুলওয়ামার নামিবিয়ান-মারসার বনভূমিতে একটি সংঘর্ষের সময়ে দুই গেরিলার মৃত্যু হয়। গত ২৩ জুলাই জম্মু-কাশ্মীরের বারামুল্লা জেলায় নিরাপত্তা বাহিনী ও গেরিলাদের মধ্যে সংঘর্ষে দুই গেরিলা নিহত হয়।

সম্প্রতি জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের মহাপরিদর্শক বিজয় কুমার বলেন, চলতি বছরে নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে ৭ বিদেশিসহ ৮৯ জন সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। সেনাবাহিনীর ১৫ কোরের কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট জেনারেল ডিপি পাণ্ডের মতে জম্মু-কাশ্মীরে কমপক্ষে ২০০/২২৫ জন সন্ত্রাসী সক্রিয় থাকতে পারে। সীমান্তের ওপার থেকে অনুপ্রবেশের চেষ্টা সফল হয়নি বলেও শ্রী পাণ্ডে মন্তব্য করেন।

সূত্রঃ পার্সটুডে