ছাগল আনতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ৫ম শ্রেণীর এক মাদরাসা ছাত্রী

ঠাকুরগাঁওয়ে ৫ম শ্রেণীর এক মাদরাসা ছাত্রী(১৩) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে ওই ঘটনায় পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ জানায়, গত মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) সদর উপজেলার ঢোলারহাট ইউনিয়নের মাধবপুর শিমুলতলা এলাকায় বাড়ির পাশে ছাগল আনতে যাচ্ছিল ওই ছাত্রী। পথিমধ্যে শিমুলতলী বাজারের বৈদ্যুতিক যন্ত্রাংশের দোকানদার রওশন রায় (৩৬) আলমগীর হোসেন(২৫), উত্তম রায়(২২) ও অনাথ রায়(৩৬) মেয়েটিকে ডেকে রওশনের দোকানে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে রওশন ও আলমগীর মেয়েটিকে মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। অপর ২ জন উত্তম রায় ও অনাথ রায় বাইরে পাহারা দেয়। পরে মেয়েটি চিৎকার দিলে আসামিরা পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় মেয়েটির মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। এ ঘটনায় পুলিশ এজাহারভুক্ত আসামি উত্তম রায়কে(২২) গ্রেফতার করেছে। সে ঢোলারহাট ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার এবং মাধবপুর গ্রামের বল্লাল রায়ের ছেলে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রাজিয়া সুলতানা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। রুহিয়া থানার ওসি চিত্তরঞ্জন রায় জানান, মামলা রুজু করা হয়েছে এবং একজন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। অপর আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।