চীনের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি: সাবেক সিআইএ কর্মকর্তা গ্রেফতার

চীনের পক্ষে গুপ্তচরবৃত্তি করার অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার সাবেক এক কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার মার্কিন বিচার বিভাগ এমন তথ্য দিয়েছে।

এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ৬৭ বছর বয়সী আলেক্সান্ডার ইউক চিং মাকে শুক্রবার গ্রেফতার করা হয়েছে।

বার্তা সংস্থা  জানায়, চীনা গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের গোপন তথ্য সরবরাহ করতে তার এক আত্মীয়ের সঙ্গে তিনি ষড়যন্ত্র করেছেন বলে অভিযোগে দাবি করা হয়।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়টি সোমবার প্রকাশ্যে চলে আসে। ইউক চিংয়ের ওই আত্মীয়ও একসময় সিআইএ-তে কর্মরত ছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব পাওয়ার পর ১৯৮২ সালে সিআইএয়ের কাজ করেন ইউক চিং। যাতে তিনি সর্বোচ্চ গোপনীয় নিরাপত্তা তথ্যেও প্রবেশ করতে পারতেন।

১৯৮৯ সালে তিনি সিআইয়ের চাকরি ছাড়েন। পরে চীনের সাংহাইতে বসবাস শুরু করেন। পরে ২০০১ সালে ফের হাওয়াইতে ফিরে আসেন।

কৌঁসুলিরা বলেন, অজ্ঞাতনামা এক আত্মীয়ের সঙ্গে মিলে ইউক চিং ষড়যন্ত্র করেছেন। নিজের সরকারি অবস্থান ব্যবহার করে চীনা নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের সহায়তার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

আদালতের নথি বলছে, তিনি হাওয়াইতে ফিরে আসার পর এফবিআইতে নিয়োগ পাওয়ার চেষ্টা করেন যাতে মার্কিন সরকারের গোপনীয় নথিতে প্রবেশের সুযোগ পান।

পরে এফবিআইয়ের হনোলুলু কার্যালয় তাকে ২০০৪ সালে চুক্তিভিত্তিক ভাষাতত্ত্ববিদ হিসেবে নিয়োগ দেয়।

তবে তাকে গ্রেফতারে কেন এত বেশি সময় নেয়া হয়েছে; সেই প্রশ্নের জবাব মেলেনি সিআইএ ও এফবিআইয়ের কাছ থেকে।