চীনের সঙ্গে ‘রেড টেলিফোন’ যোগাযোগ চালু করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

চীনের সঙ্গে একটি এমার্জেন্সি হটলাইন চালুর সম্ভাব্যতা খতিয়ে দেখছে বাইডেন প্রশাসন। জরুরি প্রয়োজনে যোগাযোগের জন্য এ ব্যবস্থা স্থাপনের চিন্তা করছে যুক্তরাষ্ট্র।

সিএনএন জানিয়েছে, শীতল যুদ্ধ চলাকালে যুক্তরাষ্ট্র ও সোভিয়েত ইউনিয়নের মধ্যে যোগাযোগের জন্য চালু হওয়া ‘রেড টেলিফোনে’র আদলে চালু হতে পারে এ এমার্জেন্সি হটলাইন। তবে এই ধারণা এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে আর চীনের কাছেও আনুষ্ঠানিকভাবে এই প্রস্তাব তোলা হয়নি।

জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে সম্ভাব্য সংঘাতের ঝুঁকি কমাতে এ পথে হাঁটতে চায় বাইডেন প্রশাসন। এই ধরনের হটলাইন প্রতিষ্ঠিত হলে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন কিংবা তার জাতীয় নিরাপত্তা দলের সদস্যরা তাৎক্ষণিকভাবে বেইজিংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনে সক্ষম হবে।

এর মাধ্যমে সেনাবাহিনীর গতিবিধি কিংবা সাইবার হামলা নিয়ে সতর্কবার্তাও আদানপ্রদান করা যাবে।

যুক্তরাষ্ট্রে বলছে, চীনা সেনাবাহিনীর আক্রমণাত্মক মনোভাব দুই দেশের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি তৈরি হওয়ার সুযোগ বাড়িয়েছে। এ জন্য তারা মনে করে, ভবিষ্যতে বড় ধরনের কোনো ভুল বোঝাবুঝি এড়াতে এ বিষয়ে অনেক কাজ করতে হবে।

আর এ বিষয়টাকে মাথায় রেখে যুক্তরাষ্ট্র মূলত চীনের সাথে যোগাযোগ বৃদ্ধির বিষয়টাকেই গুরুত্বপূর্ণ মনে করছে। মনে করা হচ্ছে, যোগাযোগটা ভালো করতে পারলে কোনো সংকটজনক পরিস্থিতি ঠেকানো যাবে।

তবে এই ধরনের যোগাযোগ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ এবারই প্রথম নয়। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আমলে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে সেই উদ্যোগ আর আগায়নি। বাইডেন প্রশাসন তা এগিয়ে নিতে চাইলেও বেশ কিছু বিস্তারিত বিষয় এখনও চূড়ান্ত করার বাকি রয়ে গেছে।