গোপালগঞ্জে কষ্টিপাথরসহ ৬ চোরাকারাবরি আটক

গোপালগঞ্জে মূল্যবান কষ্টিপাথরসহ চোরাকারাবরি ও দালাল চক্রের ছয় সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব।

বুধবার সন্ধ্যায় র‌্যাব সদস্যরা অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেন।

আটকরা হলো- গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়া উপজেলার কলাবাড়ি গ্রামের প্রেমচাঁদ বাড়ৈর ছেলে পীযুষ বাড়ৈ (৫০), একই উপজেলার উনশিয়া গ্রামের গৌরাঙ্গ কর্মকারের ছেলে গোবিন্দ কর্মকার (২৭), বুরুয়া গ্রামের অমল গাইনের ছেলে মহাদেব গাইন (২৪), মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার আমগ্রামের মৃত দেবেন্দ্র নাথ মোড়লের ছেলে প্রশান্ত কুমার মোড়ল ওরফে কীর্ত্তনিয়া (৬০), একই গ্রামের গৌরাঙ্গ বালার ছেলে কাশী বালা (৩৭) এবং মাদারীপুর জেলার কালকিনি উপজেলার কোলচরী স্বস্থাল গ্রামের মৃত মোমিন উদ্দিন মোল্লার ছেলে মো. নান্নু মোল্লা (৪৫)।

কোম্পানি অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লিডার মোহাম্মদ সাদেকুল ইসলাম এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান, মূল্যবান কষ্টিপাথর ক্রয়-বিক্রয়ের সময় হাতেনাতে ওই ছয় চোরাকারবারিকে আটক করা হয়।

এ সময় আটকদের কাছ থেকে চার কেজি ৭৮০ গ্রাম ওজনের একটি কষ্টিপাথর, কষ্টিপাথর ক্রয়-বিক্রয় কাজে ব্যবহৃত আটটি মোবাইল সেট, ১০টি সিমকার্ড ও ক্রয়-বিক্রয়ের ৩৮ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

আটক আসামিরা চোরাকারবারি, দালাল, ঠক, প্রতারক, বাটপার ও ধূর্ত প্রকৃতির বলে কলাবাড়ি গ্রামবাসী র্যা বকে জানিয়েছে। আটক আসামিরা জিজ্ঞাসাবাদে দেশের মূল্যবান কষ্টিপাথর চোরাচালানের উদ্দেশ্যে দেশের বাইরে পাচারে লিপ্ত রয়েছে। তারা দেশের বিভিন্ন স্থানের সাধারণ মানুষকে চাকরি, বদলি, ব্যবসা ও ঠিকাদারি পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে আসছে বলে স্বীকার করেছে।

এ ছাড়া তারা ঠক ও প্রতারণার কাজে জড়িত রয়েছে বলেও র্যা বকে জানিয়েছে।

ওই কর্মকর্তা আরও জানান, বৃহস্পতিবার আটক ছয় চোরাকারবারি ও উদ্ধারকৃত মূল্যবান কষ্টিপাথরসহ অন্যান্য আলামত গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।