গোপনে ইসরাইলের পক্ষে কাজ করছে কয়েকটি আরব দেশ

আমিরাত-ইসরাইলের জন্য আকাশপথ খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়ায় বাহরাইনের সমালোচনা করেছে অবরুদ্ধ গাজার শাসকগোষ্ঠী হামাস।

শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) হামাসের মুখপাত্র হাজেম কাসেমি বলেন, আমিরাত-ইসরাইল সম্পর্ক স্বাভাবিকের চুক্তি বাস্তবায়নে সহযোগিতার মাধ্যমে কয়েকটি আরব দেশ ফিলিস্তিনে তেল আবিবের সম্প্রসারণবাদনীতিকে সমর্থন করছে। ক্ষতিগ্রস্ত করছে আরবদের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম।

আমিরাতের সম্পর্ক স্বাভাবিকের চুক্তি প্রতিহত করার জন্য আরব দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান কাসেমি। বলেন, আমিরাতের চুক্তি বাস্তবায়নে সহযোগিতা ইসরাইলি দখলদারিত্ব এবং ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে তেল আবিবের চলমান অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডকে আরো উৎসাহী করবে।

বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) আমিরাত-ইসরাইলের জন্য আকাশপথ উন্মুক্তের ঘোষণা দেয় বাহরাইন। দেশটির ট্রান্সপোর্টেশন অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন মন্ত্রণালয়ের বরাতে স্থানীয় গণমাধ্যম এ তথ্য জানায়।

 

এর আগের দিন, ইসরাইলে যাওয়ার জন্য আমিরাতের বিমানকে সৌদি আরবের আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি দেয় রিয়াদ।

গত সোমবার প্রথম ইসরাইলি বাণিজ্যিক ফ্লাইট আবুধাবিতে অবতরণ করে। চুক্তি বাস্তবায়নের প্রথম ধাপ বাস্তবায়নে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলের শীর্ষ প্রতিনিধিরা ওই ফ্লাইটে আমিরাত পৌঁছান। সৌদি আরবের আকাশ সীমা ব্যবহার করে আবুধাবি যান তারা।