খলনায়কদের মুখোশ উন্মোচন প্রয়োজন: জাহাঙ্গীর কবির নানক

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, ১৫ আগস্টে শুধুই কি কিছু উ£ান্ত চিন্তার সামরিক অফিসার এই হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে?

কী কারণে বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল, কেন বাংলাদেশকে উল্টোভাবে প্রতিবাহিত করা হয়েছিল, এ বিষয়গুলো আমাদের রাজনৈতিকভাবে চিন্তা করতে হবে।

এই ষড়যন্ত্রের মূল নায়ক শুধু কি জিয়াউর রহমান? এর পেছনে আন্তর্জাতিক কিছু কুচক্রী মহলের হাত ছিল। সেই কুচক্রী মহল জাতীয় ও আন্তর্জাতিক চক্রান্তকারীদের জাতির সামনে মুখোশ উন্মোচন করা আজকের জরুরি প্রয়োজন।

গতকাল ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে স্বেচ্ছাসেবক লীগের আলোকচিত্র প্রদর্শনী ‘ইতিহাস কথা কয়’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের সভাপতিত্বে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবুর পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাবেক নেতা ম. আবদুর রাজ্জাক, গাজী মেজবাউল হোসাইন সাচ্চু, খাইরুল হাসান জুয়েল, নাফিউল করিম নাফা, কে এম মনোয়ারুল ইসলাম বিপুল, মহানগর দক্ষিণের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন প্রমুখ। জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, সেদিন যেভাবে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারকে নিয়ে, শেখ মণিকে নিয়ে অপপ্রচার চালিয়েছে এখনো সেই কুচক্রী মহল একইভাবে বাংলার মাটিতে বসে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, যারা জাতির পিতা হত্যার ষড়যন্ত্রের পেছনে ছিল তাদের মুখোশ উন্মোচন করা দরকার। এ জন্য একটি কমিশন গঠন করতে হবে।