ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের জন্য ক্রেডিট গ্যারান্টি স্কিম চালু

প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় কটেজ, মাইক্রো ও ক্ষুদ্র শিল্প (সিএমএসই) বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর বিতরণ করা ঋণের গ্যারান্টি দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক। এজন্য একটি ক্রেডিট গ্যারান্টি স্কিম চালু করলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এর আওতায় সিএমএসইতে বিতরণ করা ঋণ আদায় না হলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক মূল ঋণের সর্বোচ্চ ৮০ শতাংশ পর্যন্ত পরিশোধ করবে। আজ সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের এসএমই এন্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস্ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

সাকুর্লারে বলা হয়েছে, সম্ভাবনাময় সিএমএসই খাতে ঋণ প্রদানের ক্ষেত্রে সহায়ক জামানত গ্রহণের বিষয়টি একটি উলে­খযোগ্য প্রতিবন্ধকতা হিসেবে কাজ করছে। এ খাতে প্রান্তিক পর্যায়ের অনেক গ্রাহকের ঋণ পরিশোধের সামর্থ থাকলেও কেবলমাত্র সহায়ক জামানতের অভাবে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ তাদেরকে ঋণ প্রদানে আগ্রহী হয় না।

করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশের অর্থনীতিতে সিএমএসই খাতে সৃষ্ট বিরূপ প্রভাব থেকে উত্তরণ এবং আলোচ্য খাতে ঋণ প্রবাহ বৃদ্ধির লক্ষ্যে জামানতবিহীন ঋণের বিপরীতে ক্রেডিট গ্যারান্টি সুবিধা প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের এসএমই বিভাগের আওতায় ‘ক্রেডিট গ্যারান্টি স্কীম ইউনিটরে মাধ্যমে এ সুবিধা প্রদান করা হবে।

এ লক্ষ্যে সিএমএসই উদ্যোগ খাতে ক্রেডিট গ্যারান্টি স্কীম’ শীর্ষক একটি স্কীম চালু করা হলো। এ স্কীমে অংশগ্রহণকারী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো ক্রেডিট গ্যারন্টি সুবিধা প্রাপ্য হবে।

এতে উল্লেখ করা হয়, কটেজ, মাইক্রো. ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (সিএমএসএমই) খাতে ঘোষিত ২০ হাজার কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা প্যাকেজের আওতায় কেবলমাত্র সিএমএসই খাতে চলতি মূলধন ঋণের বিপরীতে এ ক্রেডিট গ্যারান্টি সুবিধা প্রদান করা হবে।

আগ্রহী তফসিলি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান আলোচ্য ক্রেডিট গ্যারান্টি সুবিধার জন্য নির্ধারিত নীতিমালার আলোকে সিজিএস ইউনিটের সাথে অংশগ্রহণ চুক্তি সম্পাদন করতে হবে। সম্পাদিত চুক্তির আওতায় নির্ধারিত সিএমএসই পোর্টফোলিওর বিপরীতে সিজিএস ইউনিট হতে পোর্টফোলিও গ্যারান্টি প্রদান করা হবে।

তহবিল পর্যাপ্ততার ওপর ভিত্তি করে স্কীমে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জন্য সিএমএসই খাতে চলতি মূলধন ঋণের জন্য নির্ধারিত পোর্টফোলিও সীমার সর্বোচ্চ ৩০ শতাংশ পর্যন্ত পোর্টফোলিও গ্যারান্টি ক্যাপ প্রদান করা হবে।

উক্ত পোর্টফোলিও গ্যারান্টি ক্যাপের আওতায় কোনো একক উদোক্তা বা ঋণ গ্রহীতার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৮০ শতাংশ পর্যন্ত গ্যারান্টি কভারেজ প্রদান করা হবে।