কিশোর গ্যাং লিডার নাঈম দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেফতার

কিশোর গ্যাং লিডার নাঈম ইসলামকে দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছেন পটুয়াখালী র‌্যাব-৮ সদস্যরা। সোমবার রাতে আমতলী উপজেলা পরিষদের সামনে একটি সড়ক থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে একটি দেশীয় অস্ত্র ও নগদ ২০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। এরপর তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার পুলিশ তাকে আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করেছে। আদালতের বিচারক মো. সাকিব হোসেন তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

জানা যায়, উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের কলাগাছিয়া গ্রামের মনিরুল ইসলাম টুকুর ছেলে মো. নাঈম ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে কিশোর গ্যাং ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। তিনি আমতলীতে কিশোর গ্যাংয়ের প্রধান হিসেবে এলাকার ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, মাদক, ছিনতাই ও নারী নির্যাতনসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

আমতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন সবুজ বলেন, নাঈম ছাত্রলীগের কেউ না। সে একজন সন্ত্রাসী ও কিশোর গ্যাং লিডার।

লে. কমান্ডার মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, চাঁদাবাজির অভিযোগের ভিত্তিতে দেশীয় অস্ত্র ও ২০ হাজার টাকাসহ সন্ত্রাসী নাঈমকে গ্রেফতার করে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আমতলী থানার ওসি (তদন্ত) রণজিৎ কুমার সরকার বলেন, নাঈমকে পটুয়াখালী র‌্যাব সদস্যরা আটক করেছেন। তার বিরুদ্ধে আমতলী থানায় চাঁদা ও অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। নাঈমকে আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।