কিশোরগঞ্জে লাখ টাকা জরিমানায় রক্ষা পেলেন ভুয়া চিকিৎসক

মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ রাখার অভিযোগ কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মোস্তফা মেডিকেল হলে অভিযান চালিয়েছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ফার্মেসী থেকে বেশ কিছু মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ উদ্ধার করা হয়।

মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ রাখার অভিযোগে ফার্মেসী মালিককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অভিযান চলাকালে ফার্মেসীর সামনে দেয়ালে ডাক্তারের একটি সাইনবোর্ড সবার নজরে আসে। তাতে লেখা ডাক্তার একে এম আজাদ চর্ম,যৌন,এলার্জি মা ও শিশু সহ সর্ব রোগ বিশেষজ্ঞ। সাইনবোর্ডটি ভ্রাম্যমাণ আদালতের চোখে পড়লে কোন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে তিনি পাশ করেছেন তার সনদ চাইলে বেড়িয়ে আসে থলের বিড়াল।

এ সময় তিনি বৈধ কোন কাগজ পত্র দেখাতে পারায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার ভূমি হিমাদ্রি খিসা তাকে আরও ১ লাখ টাকা জরিমানা করেন এবং অনাদায়ে এক বছরের জেল প্রদান করেন।

অভিযানে তাকে সহায়তা করেন কিশোরগঞ্জ জেলার ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক হৃদয় রঞ্জন বনিক, ভৈরব উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা রহুল আমিন, পৌর খাদ্য কর্মকর্তা নাসিমা বেগম। অভিযানে আরো ৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।