কাশ্মীর ইস্যুতে ফের ভারত বিরোধী অবস্থান নিয়েছে তুরস্ক

কাশ্মীর ইস্যুতে ফের ভারত বিরোধী অবস্থান নিয়েছে তুরস্ক। দাবি করা হচ্ছে, মূলত পাকিস্তানের সাথে একমত হয়ে কথা বলছে তুর্কী। গত ৫ আগস্ট থেকে তুরস্কের গণমাধ্যমগুলো এ নীতিতে কাজ শুরু করেছে।

এর আগেও একই প্রস্তাবে পাকিস্তান বলেছে, অবৈধভাবে কাশ্মীর দখল নিয়েছে ভারত। পাকিস্তানের সাথে একমত হয়ে তুর্কীর নতুন নীতি হয়েছে ‘অবৈধভাবে কাশ্মীর দখল করেছে ভারত’। আর সেই শিরোনামে এগিয়ে চলছে দেশটির গণমাধ্যমগুলো। গত ৪ আগস্ট থেকে তুর্কির জনগণ এই টার্মটির ব্যবহার শুরু করেছে।

তবে জানা যায়, এর আগেও তুর্কি ভারত বিরোধী অবস্থান নিয়েছিল। তারা বরাবরই বলেছে, ভারত কাশ্মীরে অবৈধ দখলদারিত্ব চালায়। এ ঘটনার পর হিন্দুস্তানে তুর্কীর জাতীয় গণমাধ্যম আনাদোলুর সম্প্রচার বন্ধ করে দিয়েছিল ভারত।

পরবর্তীতে তুর্কীর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওই সংবাদ মাধ্যমকে আরও তীব্র গতিতে এগিয়ে যেতে উৎসাহ দেয় এবং ‘ভারতের অবৈধ কাশ্মীর দখল’ এ নীতিটির ব্যবহার বাড়িয়ে দেয়।

খবরে বলা হয়, এসব নীতির ব্যবহারের ফলে পাক-তুর্কির মধ্যে পারস্পারিক সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠে।

ভারতীয় নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের এক কেন্দ্রীয় বিবৃতিতে দাবি করা হয়, অন্যান্য মুসলিম দেশগুলো যখন নিরপেক্ষ আচরণ করে তখন তুরস্ক ও পাকিস্তান ভারতের পদক্ষেপের প্রকাশ্যে বিরোধিতা করে।

ভারতীয় ওই কর্মকর্তাদের মতে, এই ঘটনা ইঙ্গিত দেয় যে ইসলামী দেশগুলির মধ্যে বিভাজন আরও প্রসারিত হচ্ছে।