কাবুল বিমানবন্দরে তুরস্কের উপস্থিতি কূটনীতির জন্য জরুরি

আফগানিস্তান থেকে সামরিক জোট ন্যাটোর সৈন্যরা চলে যাওয়ার পর কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তার প্রধান দায়িত্ব পালন করবে তুরস্ক। এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন আফগান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হানিফ আতমার। বলেন, দেশে কূটনৈতিক জনগোষ্ঠীর উপস্থিতি জরুরি। খবর প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা আনাদোলু।

গতকাল রবিবার এক সাক্ষাৎকারে আফগান পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রথমত, দক্ষতা এবং সুবিধার পাশাপাশি বিমানবন্দরের জন্য উচ্চস্তরের প্রযুক্তিগত ব্যবস্থা বজায় রাখতে তুরস্কের আগ্রহকে আমরা স্বাগত জানাই। যা কূটনৈতিক সম্প্রদায়ের অবিচ্ছিন্ন উপস্থিতির জন্য প্রয়োজনীয় হবে। পাশাপাশি আফগানিস্তান এবং আমাদের জাতীয় সুরক্ষা বাহিনীর প্রতি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন অব্যাহত থাকবে।

তুরস্ক একটি সাহসী এবং অত্যন্ত প্রশংসনীয় উদ্যোগ নিয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক পর্যায়েও তুরস্কের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। তাই আমরা তাদের এ পদক্ষেপকে পূর্ণ সমর্থন দিবো।

রবিবার তুরস্ক, আফগানিস্তান ও ইরানের মধ্যে একটি ত্রিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে তারা তিনটি গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে সহযোগিতা করতে সম্মত হয়েছে। প্রথমটি- আফগান শান্তি প্রক্রিয়া, নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবাদ ও সংগঠিত অপরাধ রোধ।

দ্বিতীয়টি- অবৈধ অভিবাসন এবং তৃতীয়টি অর্থনৈতিক সহযোগিতা। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আফগান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হানিফ আতমার, তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুট কাভুসোগলু এবং ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ।