কানাডার পশ্চিমাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ছে দাবানল

কানাডার পশ্চিমাঞ্চলে কয়েকদিন ধরে নজিরবিহীন তাপদাহ চলছে। তাপদাহের পাশাপাশি দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে ওই এলাকায়। এ কারণে ওই অঞ্চলের শত শত মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় গত বুধবার রাতে ব্রিটিশ কলম্বিয়া প্রদেশের ভ্যানকুভারের ২৫০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমের লিটন গ্রামের শ’ খানেক ঘরবাড়ি থেকে বাসিন্দাদের জরুরি ভিত্তিতে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। এরপর ওই গ্রাম থেকে স্থানীয়দের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। দাবানলে ওই গ্রামের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি ও বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তাপদাহের পর দ্রুত দাবানল ছড়িয়ে পড়ছে। ব্রিটিশ কলম্বিয়ার প্রধানমন্ত্রী জন হর্গান বলেছেন, দাবানল পরিস্থিতি অত্যন্ত ভয়াবহ হয়ে পড়েছে। স্থানীয় সংসদ সদস্য ব্রাড ভিস বলেছেন, আগুনে ওই গ্রামের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। গ্রামটির আশপাশের নানা অবকাঠামো ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে।

স্থানীয় মেয়র জেন পল্ডারম্যান বলেছেন, আমি ভাগ্যবান যে নিজের জীবন রক্ষা করতে পেরেছি। সেখানে চারপাশে আগুন জ্বলছে। তীব্র তাপদাহ ও দাবালন বিভিন্ন অবকাঠামো এবং বাসিন্দাদের নিরাপত্তার জন্য বেশ হুমকি সৃষ্টি করছে।

প্রসঙ্গত, ব্রিটিশ কলম্বিয়া প্রদেশের এ গ্রামে গত মঙ্গলবার দেশটির ইতিহাসের সর্বোচ্চ ৪৯.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস (১২১ ডিগ্রি ফারেনহাইট) তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল। তার পরের দিন সেখানে দাবানল ছড়িয়ে পড়ে।

সূত্র: বিবিসি।