কানাডার টরেন্টোতে ৬ কোটি ডলারের মাদকদ্রব্য আটক

কানাডার টরেন্টোতে ছয় কোটি এক লাখ ডলার মূল্যের মাদকদ্রব্য আটক করেছে স্থানীয় পুলিশ। দেশটির ইতিহাসে এটি সবচেয়ে বড় মাদক চোরাচালান জব্দের ঘটনা। এই ঘটনায় ২০ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা সবাই আন্তর্জাতিক মাদক চোরাচালান চক্রের সঙ্গে সরাসরি জড়িত।

জানা যায়, ২০ জনকে আটকের পাশাপাশি ১ হাজার কেজি মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে। যার বাজারমূল্য ৬ কোটি ১ লাখ ডলার। এছাড়া তাদের কাছে ১০ লাখ ডলারও পেয়েছে পুলিশ। আটককৃতরা প্রজেক্ট ব্রিসা ডিসমেন্টালড নামক একটি আন্তর্জাতিক মাদক চোরাচালান চক্রের সদিস্য। টরেন্টো পুলিশ প্রধান জেমস র‍্যামার বলেন, ‘এই প্রথম আমরা এতো বড় আকারের একটি চালান জব্দ করেছি।’

এই অভিযান করার আগে ৬ মাস তদন্ত হয়েছে। এতে অংশ নেয় অন্তত ৯টি সংস্থা। এ প্রসঙ্গে র‍্যামার বলেন, সত্যি বলতে, দক্ষিণ আমেরিকার মাদক চোরাচালান চক্রগুলোর সঙ্গে এরা সরাসরি জড়িত। তাদের আটক করার থেকেও বড় বিষয়টি হচ্ছে, কানাডায় মাদকের এতো চাহিদা এবং বড় চালানের পৌছে যাওয়া।

টরেন্টো দ্রাগ স্কয়াডের ইন্সপেক্টর টাইরন হিলটন বলেন, এতো বড় একটি চালান জব্দের ঘটনায় কানাডায় ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। কারণ এই ঘটনায় সড়কে মাদকের কেনাবেচা কমবে। নেশাগ্রস্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যাও কমবে। জানা যায়, ওই অভিযানে ৪৪৪ কেজি কোকেইন, ১৮২ কেজি ক্রিস্টাল মেথসহ আরও কিছু মারাত্মক মাদক উদ্ধার হয়েছে।