করোনা ভাইরাস হলো ধাপ্পাবাজি, ষড়যন্ত্র সাজিয়েছেন বিল গেটস’

লন্ডন বিক্ষোভ থেকে দাবি
‘করোনা ভাইরাস হলো ধাপ্পাবাজি, ষড়যন্ত্র সাজিয়েছেন বিল গেটস’

করোনা ভাইরাস আসলে কিছুই না। এসব মিথ্যে কথা। করোনা ভাইরাসের নামে বিশ্বজুড়ে গোপনে মিথ্যে এক ষড়যন্ত্র সাজিয়েছেন বিল গেটস। বিশ্বজুড়ে যখন করোনা ভাইরাসে মৃত্যুর মিছিলে অকাতরে ঢলে পড়ছে প্রাণ, চোখের সামনে সমাহিত করা হচ্ছে মানুষের শব- তখন লন্ডনে এই করোনা ভাইরাসকে একটি মিথ্যে ষড়যন্ত্র দাবি করে এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছেন কমপক্ষে ১০ হাজার মানুষ।

এতে উপস্থিত ছিলেন বিরোধী দল লেবারের সাবেক নেতা জেরেমি করবিনের ভাই পিয়ার্স করবিন। এমন উদ্ভট চিন্তাধারার বিক্ষোভ থেকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে পিয়ার্সকে। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন। এতে বলা হয়েছে কন্সপিরেন্সি থিওরিস্ট বলে পরিচিত পিয়ার্স করবিনকে তাফালগাড় স্কয়ার থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মাত্র তিন মাসের সামান্য বেশি সময়ের মধ্যে করোনাকে কেন্দ্র করে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ থেকে এবার তাকে তৃতীয়বার গ্রেপ্তার করা হলো। এর আগে ১৬ই মে এবং ৩০ শে মে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল হাইড পার্ক থেকে।

যেসব মানুষ বিশ্বাস করেন যে, করোনা ভাইরাস কিছুই না। এটা হলো একটি বোগাস, বানোয়াট ষড়যন্ত্র- ইউনাইট ফর ফ্রিডম নামের বিক্ষোভ র‌্যালিতে শনিবার দুপুরে যোগ দেন তারা। এ সময় তারা সরকারের প্রতি আহ্বান জানায় মিথ্যার আশ্রয় নেয়া বন্ধ করতে।

সবার সব স্বাধীনতা ফিরিয়ে দেয়ার আহ্বান জানানো সহয়। এ সময় তারা ডাউনিং স্ট্রিট হয়ে পার্লামেন্ট হাউজের দিকে এগিয়ে যেতে থাকে। পুলিশ বলেছে, তাফালগাড় স্কয়ারে নতুন স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৭৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে। তবে তার নাম প্রকাশ করা হয় নি।

এদিন পিযার্স করবিনকে ঠেলে একটি পুলিশ ভ্যানে তোলার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক শেয়ার করা হয়। বিক্ষোভকারীতে পূর্ণ হয়ে গিয়েছিল তাফালগাড় স্কয়ার। তবে তাদের কারো মুখে মাস্ক ছিল না। তাদের হাতে ছিল ব্যানার- নানা রকম স্লোগান লেখা। এতে করোনা মহামারিকে একটি ধাপ্পাবাজি বলে আখ্যায়িত করা হয়।

সূত্র: ডেইলি মেইল