করোনায় সুস্থ হয়েছে এক লাখ ২০ হাজার

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ২০ হাজারের কাছাকাছি হলেও ইতোমধ্যে এক লাখ ২০ হাজার সেরে উঠেছেন। করোনা শনাক্তের ১৩৯তম দিনে শুক্রবার হাসপাতাল এবং বাসায় মিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৭৬৭ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ২০ হাজার ৯৭৬ জন।

শুক্রবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাভাইরাসসংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন হেলথ বুলেটিনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, আজ শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৫ দশমিক ৩৩ শতাংশ। আগের দিন এই হার ছিল ৫৪ দশমিক ১৬ শতাংশ। আগের দিনের চেয়ে আজ সুস্থতার হার দশমিক ১৭ শতাংশ বেশি।

নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ৩৫ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। গতকালের চেয়ে আজ ১৫ জন কম মৃত্যুবরণ করেছেন। গতকাল ৫০ জন মৃত্যুবরণ করেছিলেন।

এখন পর্যন্ত দেশে এ ভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেছেন দুই হাজার ৮৩৬ জন। করোনা শনাক্তের বিবেচনায় আজ মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩০ শতাংশ। আগের দিনও এই হার ছিল ১ দশমিক ৩০ শতাংশ।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ হাজার ২৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় দুই হাজার ৫৪৮ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গতকালের চেয়ে আজ ৩০৮ জন কম শনাক্ত হয়েছেন। গতকাল ১২ হাজার ৩৯৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছিলেন দুই হাজার ৮৫৬ জন।

অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, দেশে এ পর্যন্ত মোট ১০ লাখ ৯১ হাজার ৩৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় দুই লাখ ১৮ হাজার ৬৫৮ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

মোট পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ০৪ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ২১ দশমিক ১৯ শতাংশ। আগের দিন এ হার ছিল ২৩ দশমিক ০৪ শতাংশ। আগের দিনের চেয়ে আজ শনাক্তের হার ১ দশমিক ৮৫ শতাংশ কম।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৩৬১ জনের। আগের দিন সংগ্রহ করা হয়েছিল ১২ হাজার ৯২ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ২৬৯টি নমুনা বেশি সংগ্রহ করা হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ৮০টি পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১২ হাজার ২৭ জনের। আগের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ১২ হাজার ৩৯৮ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় আগের দিনের চেয়ে ৩৭১টি কম নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।