এ অঞ্চলে শান্তির প্রতিষ্ঠার শর্ত হচ্ছে বিদেশী হস্তক্ষেপমুক্ত সহযোগিতা এবং সংহতি: রায়িসি

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি বলেছেন, এ অঞ্চলে স্থায়ী নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার জন্য দেশগুলোর মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা এবং যোগাযোগের প্রধান শর্ত হচ্ছে এখানে বিদেশী শক্তির হস্তক্ষেপ মুক্ত থাকা।

প্রেসিডেন্ট রায়িসি আজ (মঙ্গলবার) ইরাকের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফোয়াদ হোসেইনের সঙ্গে সাক্ষাতে এসব মন্তব্য করেন। একইসঙ্গে প্রতিবেশী দেশগুলোকে নিয়ে আসন্ন বাগদাদ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেয়ার জন্য ইরানকে আমন্ত্রণ জানানোয় ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মোস্তফা আল কাজেমিকে ধন্যবাদ জানিয়ে ইব্রাহিম রায়িসি বলেন, বাগদাদের এ ধরনের শীর্ষ সম্মলেনের আয়োজন নিন্দেহে একটি ভালো উদ্যোগ।

রায়িসি বলেন, আঞ্চলিক দেশের মধ্যে সুসম্পর্কের পাশাপাশি এখানে স্থায়ী শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার জন্য এসব রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে সংলাপকে ইরান যেমন গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করে তেমনি তেহরান মনে করে বিদেশী হস্তক্ষেপ এ অঞ্চলে সংকট এবং উত্তেজনা বাড়িয়ে তুলছে। তিনি বলেন, এ অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি জনগণের জন্য কল্যাণ বয়ে আনার শর্ত হচ্ছে এখানে বিদেশী হস্তক্ষেপমুক্ত সহযোগিতা এবং সংহতি বজায় রাখা।

ইরাকের সমস্যা সমাধানে ইরান সব সময় আন্তরিক এবং সংবেদনশীল ছিল বলে উল্লেখ করে রায়িসি বলেন, ইরাকের উন্নয়ন এবং সমৃদ্ধিকে ইরান তার নিজের উন্নয়ন এবং সমৃদ্ধি হিসেবে বিবেচনা করে।

সূত্রঃ পার্সটুডে