এসি বিস্ফোরণ: অনেকেই ৯৯ ভাগ দগ্ধ

নারায়ণগঞ্জে ফতুল্লার তল্লা এলাকায় মসজিদের এসি বিস্ফোরণে অন্তত একজন নিহত ও ৬০ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ২০ জনের অবস্থা গুরুতর। আহতদের ১০ জনকে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

তবে হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

জানা যায়, ফতুল্লার পশ্চিমতল্লা এলাকার বাইতুস সালাত জামে মসজিদের এয়ার কন্ডিশনার (এসি) বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বাদ এশা। জামায়াত শেষের পরপরই মসজিদের দরজা সংলগ্ন এসি বিস্ফোরণ ঘটে।

এতে বহু হতাহতের আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

তাদের স্থানীয় হাসপাতাল ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পৌনে ৯টায় মসজিদের ভেতরে থাকা এসির বিস্ফোরিত হয়। মুহূর্তের মধ্যে মসজিদের ভেতরে থাকা শতাধিক মুসল্লির হুড়োহুড়ি করে বের হওয়ার চেষ্টা করেন তারা। তাদের অনেকেই দগ্ধ ও আহত ছিলেন।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ আল আরেফিন জানান, ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের টিম কাজ করছে।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইনস্টিটিউটের সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, এইমাত্র আটজনকে নারায়ণগঞ্জ থেকে আনা হয়েছে। তবে এই ঘটনায় আরো আহত আছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। তাদের চিকিৎসা চলছে।