উল্লাপাড়ায় নদীতে ভাসছিল পুলিশ সদস্যের স্ত্রীর লাশ

শুক্রবার বিকেলে উল্লাপাড়া মডেল থানা পুলিশ উপজেলার চর কালিগঞ্জ গ্রামের পাশের ফুলজোড় শাখা নদী থেকে সুরভী খাতুন (২২) নামের এক গৃহবধূর ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে।

সুরভী এই গ্রামের পুলিশ সদস্য মনিরুল ইসলামের স্ত্রী এবং পার্শ্ববর্তী রামকান্তপুর গ্রামের শরিফুল ইসলামের মেয়ে। মনিরুল বর্তমানে রাজশাহীতে কর্মরত। সুরভীর প্রতিবেশীরা জানান, ৪ বছর আগে মনিরুলের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। মনিরুল চর কালিগঞ্জ গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে। তবে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে তাদের গোলযোগ চলে আসছিল।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দীপক কুমার দাশ জানান, সুরভীকে হত্যা করে নদীতে ফেলে দেওয়া হতে পারে বলে পুলিশের ধারণা। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন না পাওয়া পর্যন্ত এ ব্যাপারে পুলিশ নিশ্চিত করে কিছুই বলতে পারছে না।

সুরভীর স্বামী মনিরুল ইসলামকে থানায় ডেকে এনে জিজ্ঞাসাবদ করা হচ্ছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুননেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।