ইসলামি ইরানের সর্বোচ্চ নেতার উপস্থিতিতে আশুরার পূর্বরাতের শোকানুষ্ঠান

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ীর বাসভবন সংলগ্ন ইমাম খোমেনী (রহ.) হোসেইনিয়াতে শনিবার রাতে শোকাবহ আশুরার পূর্বরাতের শোকানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এতে অংশগ্রহণ করেন সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী। প্রতি বছর এই হোসেইনিয়াতে অনুষ্ঠিতে শোকানুষ্ঠানে ইরানের প্রেসিডেন্ট, পার্লামেন্ট স্পিকার, বিচার বিভাগের প্রধান ও তিন বাহিনীর প্রধানগণসহ সর্বস্তরের জনগণ অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু চলতি বছর করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার স্বার্থে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদের সংখ্যা সর্বনিম্ন পর্যায়ে নামিয়ে আনা হয়।

অনুষ্ঠানে বয়ান করেন হুজ্জাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলেমিন মাসুদ আলী বলেন, পবিত্র কুরআন ঈমানদার ব্যক্তিদের ‘ব্যক্তিগত ধৈর্য্য’ ও ‘সামাজিক ধৈর্য্য’ ধরার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগত ধৈর্য্য হচ্ছে নামাজ ও রোজা পালনসহ অন্যান্য শরিয়তি বিধিবিধান পালন করা। আর ‘সামাজিক ধৈর্য্য’ হচ্ছে সমাজে সৃষ্ট বা সমাজের ওপর বাইরে থেকে চাপিয়ে দেয়া সমস্যা কাটিয়ে ওঠার জন্য মুমিন ব্যক্তিদের পারস্পরিক সহযোগিতা। তিনি সমাজের দরিদ্র ও অভাবী মানুষের পাশে দাঁড়াতে বিত্তবান মানুষদের আহ্বান জানান।