ইসরাইলের সঙ্গে আমিরাতের চুক্তির বিষয়ে যা বলছে সৌদি আরব

ইসরাইলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের কূটনৈতিক প্রক্রিয়া শুরুর প্রতিক্রিয়ায় মুসলিম বিশ্বে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হলেও এ বিষয়ে এখনও নীরব বিশ্বের অন্যতম প্রধান মুসলিম দেশ সৌদি আরব।

শুক্রবার পর্যন্ত সৌদি আরব ও দেশটির নিয়ন্ত্রণে পরিচালিত আরব লীগ এ বিষয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি বলে আনাদোলু এজেন্সি জানিয়েছে।

উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যে সর্বপ্রথম মিসর চুক্তিটির সরাসরি সমর্থন করে। এরপর সৌদি আরবের ঘনিষ্ঠ মিত্র বাহরাইন এবং ওমানও সংযুক্ত আরব আমিরাতকে অভিনন্দন জানিয়েছে।

অন্যদিকে ফিলিস্তিন, তুরস্ক, ইরানসহ বিশ্বের অনেক দেশ ইসরাইলের সঙ্গে এমন কূটনৈতিক সম্পর্কের নিন্দা জানিয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের অন্যতম মিত্র সৌদি আরব এই চুক্তির বিষয়ে এখনও কোনো মন্তব্য করেনি। এছাড়া আরব লীগের পক্ষ থেকেও নিন্দা বা প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। বিষয়টি নিয়ে কার্যত নীরবতা অবলম্বন করছেন তারা।

প্যালেস্টাইন লিবারেশন অর্গানাইজেশনের সেক্রেটারি জেনারেল সায়েব এরাকাত বলেছেন, এমন চুক্তির নিন্দা না জানিয়ে কোনো বিবৃতি না দিলে আরব লীগের সেক্রেটারি জেনারেল আহমেদ আবুল গাইতের পদত্যাগ করা উচিত।

মুসলমানদের প্রথম কিবলার দখলদার ইসরাইলের সঙ্গে আরব আমিরাতের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার পদক্ষেপ কথিত শতাব্দীর সেরা চুক্তি নামক পরিকল্পনারই অংশ বলে বিশ্লেষকরা উল্লেখ করেছেন।

ইসরাইল আশা করছে আরও আরব দেশ শিগগিরই আমিরাতের মত পদক্ষেপ নেবে এবং বাহরাইন হবে এক্ষেত্রে দ্বিতীয় দেশ।