ইসরাইলের অবৈধ উপশহরে আবারও আগুনে বেলুন পাঠাচ্ছে ফিলিস্তিনিরা

ইহুদিবাদী ইসরাইলের অবৈধ উপশহরগুলোতে আবারো আগুনসহ বেলুন পাঠাতে শুরু করেছে ফিলিস্তিনিরা। আল-মায়াদিন টিভি চ্যানেল আজ (সোমবার) এ তথ্য জানিয়েছে।

গত শনিবার রাতে ফিলিস্তিনিরা গাজার পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্তের কাছে ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এ সময় ইসরাইলি বাহিনী বিক্ষোভকারীদের ওপর হামলা চালায়। এর ফলে অন্তত ১১ ফিলিস্তিনি তরুণ আহত হয়। শনিবারের বিক্ষোভকারীদের ওপর হামলার পর থেকেই আগুনে বেলুন পাঠাতে শুরু করে ফিলিস্তিনি তরুণেরা। কোনো কোনো বেলুনে বিস্ফোরকও রয়েছে বলে জানা গেছে।

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকা থেকে ইসরাইলের দখল করা ভূখণ্ডে উড়ে যাওয়া এসব বেলুন থেকে বড় ধরনের অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হতে পারে বলে অবৈধ উপশহরগুলোর বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

ফিলিস্তিনিরা বলেছেন,ইসরাইলের আগ্রাসন ও হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন তারা। এরপর এখন আগুনে বেলুন পাঠানো হচ্ছে। গাজার বিক্ষুব্ধ যুবকেরা সাধারণত বেলুনে হিলিয়াম গ্যাস ভরে তাতে আগুন ও বিস্ফোরক রেখে সেগুলোকে ইসলাইলের দিকে উড়িয়ে দিচ্ছে।

এর আগেও ফিলিস্তিনিরা এ ধরণের বেলুন ও ঘুড়ি উড়িয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছে। সে সময়ও তাদের বেলুন ও ঘুড়ির কারণে ব্যাপকভাবে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছিল দখলদার ইসরাইলিরা।

ফিলিস্তিনিদের বেলুনের আগুনে গাজার ওপাশের উপশহরবাসী ইহুদিদের কৃষিক্ষেত্রের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছিল। এছাড়া যে কোনো সময় যে কোনো বাড়িতে আগুন লাগতে পারে বলে আতঙ্ক তৈরি হয়েছিল। ইসরাইলি কোনো কোনো কর্মকর্তা বলেছেন,এ ধরণের আগুনের বেলুনের ভয়াবহতা প্রতিরোধ যোদ্ধাদের ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়ে কোনো অংশেই কম নয়।

সূত্রঃ পার্সটুডে