ইরানের সঙ্গে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা ব্যর্থ হলে অন্য ব্যবস্থা: বাইডেন

পারমাণবিক অস্ত্র থেকে ইরানকে বিরত রাখতে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা ব্যর্থ হলে অন্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

শনিবার ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেটের সঙ্গে প্রথমবারের মতো সরাসরি বৈঠকের পর তিনি এ মন্তব্য করেন। এ খবর জানিয়েছে ইসরাইলের সংবাদমাধ্যম হারের্ৎজ।

বিবিসি জানায়, প্রথমবারের মতো সরাসরি বৈঠকের পর ওয়াশিংটনে উচ্ছ্বসিত ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী নাফতালি ব্যানেট বলেন, ইরান ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্টের অবস্থান প্রশংসনীয়। তিনি অঙ্গীকার করেছেন ইরানকে তিনি পারমাণবিক অস্ত্র অর্জন করতে তিনি দেবেন না।

কাবুলে আইএসের বিমান হামলার কারণে ওই বৈঠক ২৪ ঘণ্টা পিছিয়ে দেওয়া হয়। ইরান জানিয়েছে, তাদের পারমাণবিক কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ। কিন্তু পশ্চিমা শক্তি ও জাতিসংঘের নিউক্লিয়ার এজেন্সি ইরানের এসব কথা মানতে নারাজ।

স্থানীয় সময় শুক্রবার হোয়াইট হাউজে অনুষ্ঠিত ৫০ মিনিটের বৈঠকের পর অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, আমরা প্রথমে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা চালাবো, দেখবো আমাদের করণীয় কী? কিন্তু যদি কূটনৈতিক প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয় তবে আমরা অন্য ব্যবস্থা নিতেও আমরা প্রস্তুত।

এসময় ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট বলেন, ইরানের পারমাণবিক অস্ত্র ইস্যুতে আপনার স্পষ্ট অবস্থানে আমি খুবই খুশি। আর আপনি কূটনৈতিক প্রচেষ্টায় যে গুরুত্ব দিচ্ছেন।