আশা করছি তালেবান কথা রাখবে: পাক সেনাপ্রধান

আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠায় সহযোগিতা করার প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেছেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। একইসঙ্গে তিনি আশা প্রকাশ করে বলেছেন, মানবাধিকার ও নারী অধিকার রক্ষা করার যে প্রতিশ্রুতি তালেবান দিয়েছে তা এই গোষ্ঠী বাস্তবায়ন করবে বলে ইসলামাবাদ আশা করছে।

জেনারেল বাজওয়া গতকাল (শুক্রবার) পাকিস্তানের এবোটাবাদ শহরের একটি সামরিক ক্যাডেট কলেজ পরিদর্শনে গিয়ে এক বক্তব্যে একথা বলেন। তিনি বলেন, আফগানিস্তানের অস্থিতিশীলতা ও গোলযোগের জন্য পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করে যেসব বক্তব্য দেয়া হয় সে ব্যাপারে ইসলামাবাদ নীরব থাকবে না।

পাক সেনাপ্রধান দাবি করেন, পাকিস্তান বরং আফগানিস্তান সংকট সমাধানে সহযোগিতা করার পাশাপাশি আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে। জেনারেল বাজওয়া বলেন, আফগানিস্তানের নিরাপত্তাহীনতার কারণে পাকিস্তানকে এ পর্যন্ত চড়া মূল্য দিতে হয়েছে। তিনি আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠায় সহযোগিতা করার জন্য আন্তর্জাতিক সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।

এদিকে পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আফগানিস্তানে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠিত হলে তাতে উপকৃত হবে পাকিস্তান। এ কারণে দেশটির শান্তি প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করার জন্য সম্ভাব্য সবরকম চেষ্টা করবে ইসলামাবাদ।

পাক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তালেবানকে স্বীকৃতি দেয়া হবে কিনা সে ব্যাপারে শিগগিরই পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও তার মন্ত্রিসভা সিদ্ধান্ত নেবে।

সূত্রঃ পার্সটুডে