আল-জাবরির সন্তানদের খোঁজ চায় যুক্তরাষ্ট্র, দুশ্চিন্তায় সামলান

সৌদি আরবের সাবেক শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তা সাদ আল-জাবরি আশ্রয় নিয়েছেন কানাডায়। এবার তাকে দেশে ফিরতে বাধ্য করতে যুবরাজ বিন সালমানের নির্দেশে তার দুই সন্তানসহ এক ভাইকে আটক করেছে প্রশাসন। মূলত এ কারণে তার সন্তানরা ঠিক কোথায় আছেন তা জানাতে রিয়াদ সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

সন্তানরা বন্দি অবস্থায় কেমন বা কীভাবে আছে বিষয়টি পরিষ্কার করতে সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানিয়ে চিঠি পাঠিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সেখানে বলা হয়, সৌদি আরবকে এ বিষয়ে বারবার অনুরোধ করা হয়েছে। কানাডায় নির্বাচনে থাকা সাদ আল-জাবরি অভিযোগ করেছেন তাকে হত্যা করতে চান সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান।

চিঠিতে আরও বলা হয়, গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রের চারজন সিনেটর একটি চিঠি লিখেছিলেন। তারপর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আরেকটি চিঠি লিখে। ওই চিঠিতে সাদ আল-জাবরির আটক সন্তানদের মুক্ত করতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সহায়তা করার আহ্বান জানানো হয়।

সাদ আল-জাবরি যুক্তরাষ্ট্রের জন্য ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করেছেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ব্যুরো অব লেজিস্লেটিভ অ্যাফেয়ার্সে ভারপ্রাপ্ত সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী রায়ান এম কালদাহল চিঠিতে বলেছেন, অনেক বছর যাবত সন্ত্রাসবিরোধী প্রচেষ্টায় রিয়াদে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের পক্ষে কাজ করেছেন ড. সাদ আল জাবরি।

তিনি আরও বলেন, আমাদের মিশন ও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে হুমকির বিষয়ে সার্বক্ষণিক তৎপর ছিলেন। তাই তার সন্তানদের সুস্থ থাকা, ভালো থাকার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের কিছু করা উচিত।

সূত্র : আল-জাজিরা