আরেক দফা এস-৪০০ কিনতে দ্বিধা করবে না তুরস্ক: এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বলেছেন, রাশিয়ার কাছ থেকে অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০-এর দ্বিতীয় চালান গ্রহণ করতে তার সরকার বদ্ধপরিকর। আমেরিকাসহ ন্যাটো জোটের অন্যান্য সহযোগী দেশগুলোর প্রচণ্ড বিরোধিতা সত্ত্বেও এ ঘোষণা দিলেন এরদোগান।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট রোববার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, প্রতিরক্ষা শিল্পে সহযোগিতার লক্ষ্যে আঙ্কারা ও মস্কো এ পর্যন্ত বহু পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। এস-৪০০-এর দ্বিতীয় চালান গ্রহণ করতে তুরস্ক বিন্দুমাত্র দ্বিধা করবে না বলেও তিনি প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

বসনিয়া হার্জেগোভিনা সফর শেষে রোববার বিমানে করে দেশে ফেরার পথে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এরদোগান এ প্রত্যয়ের কথা জানান।

এর আগে রাশিয়ার সমরাস্ত্র রপ্তানিকারক রাষ্ট্রীয় সংস্থা রোসোবোরোন-এক্সপোর্টের পরিচালক আলেক্সান্ডার মিখিভ গত সপ্তাহে এক সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা করেছিলেন, ২০২১ সাল শেষ হওয়ার আগেই দ্বিতীয় দফায় রাশিয়ার কাছ থেকে তুরস্কের এস-৪০০ ব্যবস্থা কেনার চুক্তি চূড়ান্ত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আমেরিকার তীব্র বিরোধিতা সত্ত্বেও ২০১৯ সালের জুলাই মাসে রাশিয়ার কাছ থেকে প্রথম দফা এস-৪০০ ব্যবস্থা গ্রহণ করে তুরস্ক। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে তুরস্ক ও রাশিয়ার মধ্যে এই ব্যবস্থা কেনার ব্যাপারে চুক্তি সই হয়।

এই ব্যবস্থা কেনা নিয়ে গত কয়েক বছর ধরে আমেরিকার সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্কে তীব্র টানাপড়েন চলছে।

আমেরিকা দাবি করছে, তুরস্ক এস-৪০০ ব্যবহার করলে রাশিয়া ন্যাটো জোটের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার গোপন তথ্য জেনে যেতে পারে এবং সেক্ষেত্রে ন্যাটোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা দুর্বল হয়ে পড়বে। তুরস্ক অবশ্য এ দাবি প্রত্যাখ্যান করে এসেছে। এস-৪০০ ব্যবস্থায় পাঁচ থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরত্বে শত্রুর যেকোনো লক্ষ্যবস্তু শনাক্ত করে তাতে একযোগে ৭২টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করার ব্যবস্থা রয়েছে।

সূএঃ পার্সটুডে