আমেরিকায় ফিলিস্তিন সংশ্লিষ্ট ২ ব্যক্তিকে আটকের দাবি নাকচ করল হামাস

মার্কিন সরকার ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দুই ব্যক্তিকে আটক করার যে দাবি করেছে তা সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছে হামাস।

ফিলিস্তিনের বার্তা সংস্থা  হামাসের এক বিবৃতির উদ্ধৃতি দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমেরিকায় তৎপর ‘বুগালুবুয়া’ (Boogaloo Bois Group) আন্দোলন বা ওই আন্দোলনের কোনো ব্যক্তির সঙ্গে হামাসের বিন্দুমাত্র সম্পর্ক নেই। আমেরিকা বুগালুবুয়ার সঙ্গে হামাসের সম্পর্ক থাকার যে দাবি করছে তা নিন্দনীয় ও ঘৃণ্য অপচেষ্টা মাত্র।

বিবৃতিতে হামাস বলেছে, ইহুদিবাদী ইসরাইলের আবেদনে সাড়া দিয়ে ওয়াশিংটন হামাসের ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ন করার জন্য এমন অভিযোগ উত্থাপন করেছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ফিলিস্তিনি মাতৃভূমিকে দখলদার ইহুদিবাদীদের হাত থেকে মুক্ত করার লক্ষ্যে হামাস প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এবং এই সংগঠনের তৎপরতা ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে সীমাবদ্ধ ।হামাস অন্য কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোনো অবস্থায়ই হস্তক্ষেপ করে না।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন সম্প্রতি ঘোষণা করেছে, তারা সেদেশের মিনিয়াপোলিস শহর থেকে হামাসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে। মার্কিন বিচার মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, আটক মাইকেল রবার্ট (৩০) ও বেনিয়ামিন তিত্‌র (২২) বুগালুবুয়া আন্দোলনের সদস্য।

এই দুই ব্যক্তি ট্রাম্প প্রশাসনের ক্ষতি করার জন্য হামাসে যোগ দিতে এবং ফিলিস্তিনি এই সংগঠনকে অর্থ ও অস্ত্র সরবরাহ করতে চেয়েছিল বলে ওই মন্ত্রণালয় দাবি করেছে।

মার্কিন সরকার বুগালুবুয়া আন্দোলনকে একটি বিপজ্জনক গোষ্ঠী হিসেবে চিহ্নিত করে কালো তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেছে। এই গোষ্ঠীর সদস্যরা আমেরিকায় বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের সুযোগে নাশকতা চালাচ্ছে বলে ওয়াশিংটন অভিযোগ করছে।