আমৃত্যু সাজাপ্রাপ্ত পলাতক যুদ্ধাপরাধী জব্বার ইঞ্জিনিয়ারের মৃত্যু

আমেরিকায় আত্মগোপনে থাকা যুদ্ধাপরাধের দায়ে আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে ফেরারি আসামি আব্দুল জব্বার ইঞ্জিনিয়ার (৮৮) মারা গেছেন। মঙ্গলবার সকালে তিনি আমেরিকার ফ্লোরিডায় তার মেয়ের বাসায় মারা যান।

পারিবারিক সূত্র তার মৃত্যুর বিষয়টি স্থানীয় সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন। তিনি বেশ কয়েক বছর ধরে ক্যানসার আক্রান্ত অবস্থায় আমেরিকায় তার বড় মেয়ের বাসায় আত্মগোপনে থেকে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার বাড়ি মঠবাড়িয়া উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নের খেতাচিড়া গ্রামে।

১৯৭১ সালে আব্দুল জব্বার পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় শান্তি কমিটির চেয়ারম্যান হয়ে বিশাল এক রাজাকার বাহিনী গড়ে তুলে স্থানীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর গণহত্যা, ধর্ষণ, লুটপাট চালিয়েছিলেন। আর যুদ্ধাপরাধের দায়ে ২০১৫ সালে তাকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেন আদালত।

ওই মামলা দায়েরের আগেই তিনি দেশ ছেড়ে আমেরিকায় পালিয়ে যান। এরপর থেকে তিনি আমেরিকায় পলাতক অবস্থায় ছিলেন। তার বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের সময় মঠবাড়িয়ায় ৩৬ জন মুক্তিকামী মানুষের ওপর গণহত্যা, ২০০ জনকে জোরপূর্বক ধর্মান্তরিত করা ও ৫৫৭টি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করাসহ পাঁচটি গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া, আব্দুল জব্বারের নাম রয়েছে সেক্টর কমান্ডারস ঘোষিত ৫০ যুদ্ধাপরাধীর তালিকায়।