আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে তালেবানকে সুস্পষ্ট বার্তা দিন

শান্তির ব্যাপারে তালেবানকে ‘সুস্পষ্ট বার্তা’ দেয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সমাজের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে আফগান সরকার। আফগানিস্তানের জাতীয় শান্তি পরিষদের চেয়ারম্যান ও তালেবানের সঙ্গে আলোচনায় কাবুল সরকারের প্রতিনিধিদলের প্রধান আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ এ আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি কাতারের রাজধানী দোহায় আমেরিকা, রাশিয়া, চীন ও আঞ্চলিক দেশগুলোর প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ আহ্বান জানান। দোহায় মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া তিন দিনব্যাপী এ বৈঠকে আফগান সরকারের পাশাপাশি তালেবানের পক্ষ থেকেও একটি প্রতিনিধিদল অংশ নিচ্ছে। দোহায় তালেবানের মুখপাত্র মোহাম্মাদ নাঈম বলেছেন, তাদের দোহা দফতরের উপ প্রধান মোলভি হানাফির নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল এ বৈঠকে অংশ নিচ্ছে।

মঙ্গলবার প্রথম পর্বের বৈঠকে আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ বলেন, তালেবান শান্তি আলোচনাকে গুরুত্ব দেবে বলে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তারা তা লঙ্ঘন করেছে। একইসঙ্গে তারা যুদ্ধ ও সহিংসতার তীব্রতা বাড়িয়েছে এবং দেশের বিভিন্ন এলাকায় আক্রমণাত্মক হামলা জোরদার করেছে।

দোহা বৈঠকে জালমাই খালিলজাদ মার্কিন প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তালেবান তাদের সব বন্দিকে মুক্তি দেয়ার যে আহ্বান জানাচ্ছে সে সম্পর্কে আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ বলেন, এর আগে তালেবান বন্দিদের মুক্তি দেয়ার ঘটনা যুদ্ধ বন্ধ করে শান্তি প্রক্রিয়াকে গতিশীল করতে সাহায্য করেনি। মুক্তিপ্রাপ্ত তালেবান সদস্যরা যুদ্ধে যোগ দিয়েছে। আব্দুল্লাহ আরো বলেন, “হাজার হাজার সন্ত্রাসী আফগানিস্তানে অনুপ্রবেশ করেছে এবং তারা আমাদের জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে।

দোহা বৈঠকে অংশগ্রহণকারী বিদেশি প্রতিনিধিরা অবিলম্বে আফগানিস্তানে সহিংসতা ও যুদ্ধ বন্ধ করে জোরদারভাবে শান্তি আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান। আমেরিকা, চীন, রাশিয়া, কাতার, ইরান, ভারত ও পাকিস্তানের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে এ বৈঠকে আরো দু’দিন চলবে বলে কথা রয়েছে।

সূত্রঃ পার্সটুডে